• আজ রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ২৮ নভেম্বর, ২০২১ ৷

১৮৬ টি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণকাজ শুরু হবে এ মাসেই : যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

Sports news
❏ রবিবার, অক্টোবর ১৭, ২০২১ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: যুবসমাজকে মাদক, সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ থেকে দুরে রাখতে দেশের ১২৫ টি উপজেলায় ইতিমধ্যে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া প্রায় সাড়ে ষোলশত কোটি টাকা ব্যয়ে আরো ১৮৬ টি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের কাজ এ মাসেই শুরু করা হবে বলে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

তিনি আজ রোববার (১৬ অক্টোবর)  ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে আয়োজিত ডিএনসিসির মেয়র কাপ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান।

অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুসহ পরিবারের প্রতিটি সদস্যই অত্যন্ত ক্রীড়ামোদি ছিলেন । বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ পুত্র শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এদেশে আধুনিক ফুটবলের রুপকার। তিনি আবাহনী ক্রীড়া চক্র প্রতিষ্ঠা করে ১৯৭৩ সালে আবাহনীর জন্য বিদেশী কোচ বিল হার্টকে নিয়ে এসেছিলেন শেখ কামাল। শহীদ শেখ জামালও ছিলেন একজন সফল ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠক। তিনি একজন ভালো টেনিস খেলোয়াড় ছিলেন। পারিবারিকভাবেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খেলাধুলাকে পছন্দ করেন। তাঁর সার্বিক পৃষ্ঠপোষকতায় দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে দেশের ক্রীড়াঙ্গন। ফুটবল ক্রিকেটসহ বিভিন্ন ক্রীড়ায় একের পর এক সাফল্য অর্জিত হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, বর্তমান ক্রীড়াবান্ধব সরকার ক্রীড়ার উন্নয়নে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। প্রতিটি জেলায় ইনডোর স্টেডিয়াম, টেনিস কমপ্লেক্সসহ সুইমিং পুল ও জিমনেসিয়াম নির্মান করা হচ্ছে।
এ সময়ে প্রতিমন্ত্রী ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনকে এ জাতীয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজনের উদ্যোগ গ্রহন করায় ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান এবং অন্যান্য কর্পোরেশন সংস্থাকেও এগিয়ে আসার উদাত্ত আহ্বান জানান। তিনি রাজধানীর অবৈধ ভাবে দখলকৃত খেলার মাঠসমূহকে উদ্ধারে পদক্ষেপ নিতে সিটি করপোরেশনকে অনুরোধ জানান। অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ ডিএনসিসির মেয়র কাপ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার ট্রফি ও লোগো উন্মোচন করেন।

অনুষ্ঠানে রাজধানীর বিভিন্ন আসনের মাননীয় সংসদ সদস্যবৃন্দ, ডিএমপির পুলিশ কমিশনার শফিকুল ইসলাম, সাইফ পাওয়ার ট্যাকের ব্যবস্হাপনা পরিচালক তরফদার রুহুল আমিন, বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।