শাহজাদপুরে ২ দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত-১৭, আটক ২০

Hamla
❏ সোমবার, অক্টোবর ১৮, ২০২১ রাজশাহী

রাজিব আহমেদ রাসেল, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ২ দল গ্রামবাসীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় ৭ পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ১৭ জন গুরুতর আহত হয়েছে এবং গবাদি পশু লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পুলিশ সদস্যসহ আহতদের শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।

জানা যায়, শাহজাদপুর উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের উল্টাডাব গ্রামের ছালাম মেম্বার পক্ষের সাথে ইব্রাহিম সরদার পক্ষের দীর্ঘদিনের বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধের জেরে বেশ কিছুদিন পূর্বে উভয় পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় গত ৭ ফেব্রুয়ারী আনিছুর রহমান নামের একজনের মৃত্যু হয়।

এলাকাবাসী জানায়, রবিবার (১৭ অক্টোবর) আনুমানিক বিকাল ৩টায় ছালাম মেম্বার পক্ষের ২ জন ব্যক্তি পৌর শহর থেকে উল্টাডাব গ্রামে বাড়ি ফেরার সময় ইব্রাহিম পক্ষের লোকজন তাদের উপর আতর্কিতে হামলা চালায়। এতে উক্ত দুই ব্যক্তিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্বজনরা উদ্ধার করে এনায়েতপুর খাঁজা ইউনুস আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

হামলার খবর গ্রামে ছড়িয়ে পরলে ছালাম মেম্বার পক্ষের প্রায় ৬০-৭০ জন মানুষ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ইব্রাহিম সরদারের পক্ষের লোকজনের বাড়িঘরে হামলা চালায়। এসময় উক্ত গ্রামের সর্বোত্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে।

খবর পেয়ে শাহজাদপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। শাহজাদপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসিবুল হোসেন, ওসি শাহিদ মাহমুদ খান ও ওসি (অপারেশন এন্ড কমিউনিটি পুলিশিং) আব্দুল মজিদের নেতৃত্বে সংঘর্ষে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করে। এসময় বেশ প্রায় ২৫ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানা পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে ও উল্টাডাব গ্রামে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

ইব্রাহিম সরদারের স্ত্রী খোদেজা বেগম জানান, ছালাম গ্রুপের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমাদের বাড়ি ঘরে হামলা চালায়। এসময় তাদের লাঠি ও ধাড়ালো অস্ত্রের আঘাতে প্রায় ৮জন আহত হয়। আহতরা হলো – ইব্রাহিম সরদার (৬৫), রোকন (৩৫), রশীদ (২৫), উজ্জল (৩০), ইদ্রিস (৪৫), কামিরুল (৩৫), আনোয়ার (৪০)।

একই পক্ষের মরিয়ম খাতুন বলেন, আমাদের বাড়িতে লাঠি সোটা ও ফালা নিয়ে ঢুকে ছালাম পক্ষের লোকজন পুরুষ সদস্যদের খুঁজতে থাকে। তাদের না পেয়ে আমাদের গোয়ালের প্রায় ২২টি গরু লুট করে নিয়ে যায়, তদের বাধা দিলে আমাকে ও আমার জাঁ শাফিয়া খাতুনকে শ্লীলতাহানী ও মারধর করে গরু নিয়ে যায়।

এই বিষয়ে শাহজাদপুর থানার ওসি (অপারেশন এন্ড কমিউনিটি পুলিশিং) আব্দুল মজিদ জানান, আধিপত্ব বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছালাম মেম্বার ও সবুজ পক্ষের লোকজনের সাথে ইব্রাহিম পক্ষের দীর্ঘদিনের বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে বেশকিছুদিন পূর্বে সংঘর্ষের ঘটনায় ১ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষের খবর পেয়ে শাহজাদপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। উল্টাডাব গ্রামের পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক এবং এই ঘটনায় প্রায় ২০ জনকে আটক করা হয়েছে বলে তিনি জানান।