• আজ বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

বাংলাদেশের ঘটনার পর তিনগুণ বেশি ভোটে জিতব: বিজেপি নেতা শুভেন্দু

subindu n34n
❏ সোমবার, অক্টোবর ১৮, ২০২১ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শান্তিপুর উপ-নির্বাচনের প্রচারে বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর নির্যাতন ও প্রতিমা ভাঙচুরের প্রসঙ্গ তুললেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

রোববার (১৭ অক্টোবর) শান্তিপুরে এক কর্মীসভা শেষে শুভেন্দুবাবু বলেন, বাংলাদেশের ঘটনার জন্য তিন গুণ ভোটে জিতবে বিজেপি।

শান্তিপুরের একটি লজে এই কর্মীসভায় উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদারও। শান্তিপুরের লড়াইয়ে যে বিজেপি হাল ছাড়তে রাজি নয় তা এদিন স্পষ্ট করে দেন শুভেন্দুবাবু। জানান, কোনও মতেই লড়াইয়ের ময়দান ছাড়া চলবে না।

উল্লেখ্য, আগামী ৩০ অক্টোবর শান্তিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন রয়েছে। আর এই উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে শান্তিপুর বিধানসভায় ইতিমধ্যে চতুর্মুখী লড়াইয়ের প্রেক্ষাপট তৈরি হয়েছে। গত বিধানসভা নির্বাচনে শান্তিপুর বিধানসভায় জয়ী হয়েছিলেন বিজেপি প্রার্থী জগন্নাথ সরকার। প্রায় ১৬ হাজারেরও বেশি ভোটে জয়ী হয়েছিলেন তিনি।

কিন্তু, তিনি বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরই শান্তিপুর বিধানসভায় আবারও উপনির্বাচন হতে চলেছে। দ্বিতীয়বারের লড়াইয়ে জায়গা ছাড়তে নারাজ বিজেপি।

রোববার দলীয় কর্মীদের মনোবল বাড়াতে এবং শান্তিপুরের একটি বেসরকারি লজে কর্মীসভায় যোগদান করেন শুভেন্দু অধিকারী। সেখানেই সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বাংলাদেশের হামলার প্রসঙ্গ টেনে আনেন।

শুভেন্দু বলেন, ‘ওপার বাংলা থেকে অত্যাচারিত হয়ে মানুষজন এখানে এসেছে। ওপার বাংলায় বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজোয় যা হয়েছে, তার উত্তর শান্তিপুরের মানুষ দেবে।’

যদিও এলাকার গোষ্ঠীকোন্দল নিয়ে সাংবাদিকরা তাঁকে প্রশ্ন করতেই মেজাজ হারান শুভেন্দু। সাংবাদিকদের ‘চটি চাটা মিডিয়া’ বলেও কটাক্ষ করতে শোনা গিয়েছে নন্দীগ্রামের বিধায়ককে। সম্প্রতি শান্তিপুরের মণ্ডল সভাপতিও তৃণমূলে যোগদান করেছেন।

তবে কী ভাবে এলাকার ভোট বিজেপি-র দিকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব? এ প্রশ্নের উত্তরে শুভেন্দুর জবাব, ‘বিজেপিতে ব্যক্তি কোনও প্রাধান্য পায় না। এটা আদর্শের ভোট। বিচারধারার বোট। শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের ভোট। যদিও কারও কোনও প্রভাব থাকে এই নির্বাচনে, তবে তা নরেন্দ্র মোদীর।’