• আজ বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

ফেসবুকের নতুন নাম কী হবে, মেটা না হরাইজন!

facebook n23
❏ শনিবার, অক্টোবর ২৩, ২০২১ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক- জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের নামে পরিবর্তন আসবে, এমন খবর ব্যবহারকারীদের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে। অনেকেই সম্ভাব্য নাম প্রস্তাব করেছেন। সেই প্রস্তাবনার বেশির ভাগই তাঁরা করেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী প্ল্যাটফর্ম টুইটারে গিয়ে।

কেউ কেউ বলেছেন নাম সংক্ষেপ করে ‘এফবি’ করা হোক। অনেকেই এ নামে ফেসবুকের উল্লেখ করে থাকেন। আবার ফেসবুকের প্রথম নাম ‘দ্য ফেসবুক’ করার দাবিও এসেছে। নাম পরিবর্তনের পরিকল্পনার খবর প্রথম প্রকাশ করে দ্য ভার্জ। ওয়েবসাইটটির আরেক প্রতিবেদনে সম্ভাব্য নাম হিসেবে ‘হরাইজন’-এর উল্লেখ পাওয়া যায়। বেশ আগে থেকেই এ নামে একটি ভার্চ্যুয়াল রিয়েলিটি প্ল্যাটফর্ম তৈরিতে কাজ করছে ফেসবুক। মেটাভার্সের ধারণার সঙ্গেও যা মিলে যায়।

মেটাভার্সে ফেসবুকের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সেবা পাওয়া যাবে ভার্চ্যুয়াল জগতে, যে জগতে ব্যবহারকারীরা যুক্ত হয়ে বাস্তব দুনিয়ার মতো একে অপরের সঙ্গে কথোপকথন চালাতে পারবেন, একসঙ্গে কিছু কিছু কাজও হয়তো করতে পারবেন। ভার্চ্যুয়াল আর বাস্তব জগতের বিভেদ কমে যাবে বলা হচ্ছে, যা অগমেন্টেড এবং ভার্চ্যুয়াল রিয়েলিটি প্রযুক্তির সাহায্যে সম্ভব হবে।

‘মেটা’ নামটাও শোনা যাচ্ছে। ফেসবুকের সাবেক কর্মকর্তা সামিদ চক্রবর্তীসহ অনেকে এ নাম প্রস্তাব করেছেন। তা ছাড়া মেটা ডটকমে ঢুকলে সেটি মেটা ডট অর্গ ওয়েবসাইটে নিয়ে যায়। চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভের উদ্যোগে বায়োমেডিকেল গবেষণা নিয়ে কাজ করা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট সেটি। দাতব্য সংস্থাটি প্রতিষ্ঠা করেন মার্ক জাকারবার্গ ও তাঁর স্ত্রী প্রসিলা চ্যান।

দ্য ভার্জের প্রতিবেদনে ব্র্যান্ড পুনর্গঠনের উদ্দেশ্য হিসেবে মেটাভার্সের কথাই বলা হয়েছে। সে ক্ষেত্রে নতুন একটি মাতৃপ্রতিষ্ঠান গঠন করে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেঞ্জারসহ প্রতিষ্ঠানটির সব সেবা সেটির অধীন আনা হতে পারে।

সম্প্রতি জানা গেছে, সংস্থার নামই বদলে ফেলতে চলেছে সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট। ইতোমধ্যেই এই বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। সম্ভবত আগামী সপ্তাহেই নতুন নামের কথা ঘোষণা করতে পারেন ফেসবুককর্তা মার্ক জুকারবার্গ। ফেসবুক নামে শুধুমাত্র একটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম নিয়ে সংস্থার যাত্রা শুরু হলেও বর্তমানে এই সংস্থার অধীনে রয়েছে একাধিক প্ল্যাটফর্ম। সে জন্যই সম্ভবত এবার নতুন নামে আত্মপ্রকাশ করার কথা ভাবছে ফেসবুক।

আগামী সপ্তাহে ২৮ অক্টোবরে সংস্থার একটি কনফারেন্স রয়েছে। দ্য ভার্জ-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, সেই বৈঠকেই নতুন নামের বিষয়ে আলোচনা করবেন ফেসবুকের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার তথা প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ। তবে সংস্থার নাম বদলালেও সম্ভবত ফেসবুক অ্যাপের নাম বদলাবে না। নতুন যে নামে সংস্থা আত্মপ্রকাশ করবে তার অধীনে একটি অ্যাপের নাম হয়ে থাকবে ফেসবুক।

ধারণা করা হচ্ছে, সংস্থার অধীনে যেহেতু এখন ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপের মতো একাধিক প্ল্যাটফর্ম রয়েছে, তাই সংস্থার নাম ফেসবুক হওয়া বাঞ্ছনীয় নয় বলেই মনে করছেন উচ্চপদস্থ কর্তারা। ঠিক যেমন গুগলের ক্ষেত্রে মূল সংস্থার নাম হিসেবে রয়েছে গুগল আলফাবেট। সে ভাবেই নাম বদলাতে চাইছে ফেসবুক।

যদিও ফেসবুকের পক্ষ থেকে এখনও এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।