🕓 সংবাদ শিরোনাম

শিশুকে ডায়াবিটিস থেকে দূরে রাখতে কী কী সতর্কতা অবলম্বন করবেনদক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াকে তৈরি থাকার বার্তা দিল ”হু”বুড়িগঙ্গায় ’সাকার ফিশ’র দখলে, হুমকিতে দেশীয় মাছরোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির থেকে ধারালো অস্ত্রসহ আটক-৫করতোয়ার তীরে নিথর পড়ে ছিলো মস্তকহীন নবজাতক!গাজীপুরে দুই শিশুকে ‘হত্যার’ পর ফ্যানে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা মা’য়ের!ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ: জাহাজ চলাচল বন্ধ; সহস্রাধিক পর্যটক আটকা সেন্টমার্টিনেআখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো নীলফামারীর তিনদিন ব্যাপী ইজতেমাবঙ্গবন্ধুর শাসনব্যবস্থা নিয়ে গবেষণা করতে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীর আহ্বানভোটে হেরে ক্ষোভ মেটাতে রাস্তায় বেড়া দিলেন প্রার্থী, ভোগান্তিতে পুরো গ্রাম!

  • আজ রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার শিরোপা যুদ্ধ আগামীকাল

Sports news
❏ শনিবার, নভেম্বর ১৩, ২০২১ খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক: আগামীকাল ১৪ নভেম্বর দুবাইয়ে নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া শিরোপা নির্ধারণীর লড়াইয়ে নামবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সবচেয়ে ছোট ফরম্যাটে নিউজিল্যান্ড এই প্রথম হলেও ২০১৫ সাল থেকে এই নিয়ে আইসিসি বিশ্বকাপের চার আসরে ফাইনালে উঠলো নিউজিল্যান্ড।

অন্যদিকে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ২০১০ সালের পর প্রথম ফাইনাল খেলছে অস্ট্রেলিয়া। ফাইনাল হারতে হয়েছিল ইংল্যান্ডের কাছে। সমীকরণের দিকে চোখ দিলে দেখা যায়, টেস্ট ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড মুখোমুখি হয়েছে ৬০ বার, ওডিআই ১৩৭ বার, টি-টোয়েন্ট ১৪ বার।

টেস্টে অস্ট্রেলিয়া জয় পেছে ৩৪টি, নিউজিল্যান্ড ৮টি, ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া ৯২টি নিউজিল্যান্ড ৩৯টি, টি-টোয়েন্টি অস্ট্রেলিয়া ৯টি এবং নিউজিল্যান্ড ৫টি।

আইসিসি আয়োজিত ওয়ানডে সংস্করণে অস্ট্রেলিয়া পাঁচবার বিশ্ব চাম্পিয়ন হয়েছে। নিউজিল্যান্ড এখনো ওয়ানডে সংস্করণে কাপ জেতেনি।

টুর্নামেন্টের শুরুতে ফেভারিটের তালিকায় না থাকা দল দুটি সেমিতে উঠেছিল গ্রুপ রানার্সআপ হিসাবে। ফেভারিট তত্ত্বকে ভুল প্রমাণ করে শেষ পর্যন্ত তারাই নামছে শিরোপার যুদ্ধে।

মেলবোর্নে ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপ ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েই এই সংস্করণে রেকর্ড পঞ্চম বিশ্বকাপ ট্রফি জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। এবার তার বদলা নেওয়ার সুযোগ নিউজিল্যান্ডের সামনে। তবে যুদ্ধে নামার আগে রণসঙ্গীতের বদলে কাল ভ্রাতৃত্বের জয়গান গাইলেন অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার, ‘পরস্পরের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও বন্ধুত্বই দুই দলের সুসম্পর্কের ভিত। আমাদের দ্বৈরথের ইতিহাস অনেক সমৃদ্ধ। তাদের খেলা দেখে আমরা বড় হয়েছি। গত কয়েক বছর ধরে যে ব্র্যান্ডের ক্রিকেট খেলছে নিউজিল্যান্ড, এককথায় অসাধারণ। তাদের হারাতে গোটা আসরের মতোই সামর্থ্যরে শেষ সীমা ছুঁতে হবে আমাদের। আগে ব্যাট করি বা পরে, ভয়ডরহীন আগ্রাসী ক্রিকেট খেলতে হবে। পাকিস্তানের বিপক্ষে বা তার আগে বাংলাদেশের বিপক্ষে ঠিক যেভাবে খেলেছি।’

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড যে ব্র্যান্ডের ক্রিকেটই খেলুক না কেন, বাস্তবতা হলো এশিয়ার মাটিতে রোববারের ফাইনালে এশিয়ার ভূমিকা নীরব দর্শকের। ফাইনালের টিকিট আগেই কেটে রাখা প্রবাসী এশিয়ানরা করতালি দেবেন কার জন্য?