• আজ বুধবার, ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ১ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

বিজিবির সঙ্গে ‘গোলাগুলিতে’ যুবক নিহত, ইয়াবা ও আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

bgb
❏ রবিবার, নভেম্বর ১৪, ২০২১ চট্টগ্রাম, দেশের খবর

শাহীন মাহমুদ রাসেল, কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে গোলাগুলিতে এক যুবক নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। তাঁর নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

বিজিবির দাবি, নিহত যুবক ইয়াবা কারবারি। ঘটনাস্থল থেকে এক লাখ ইয়াবা, একটি এলজি উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিজিবির দুই সদস্যও আহত হয়েছেন।

রবিবার (১৪ নভেম্বর ) ভোররাত তিনটার দিকে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ঝিমংখালীর নাফ নদীর বেড়িবাঁধে এই ঘটনা ঘটে।

টেকনাফ ২ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

বিজিবির পক্ষ থেকে নিহতের পরিচয় নিশ্চিত করা না হলেও নিহত যুবক মিনাবাজারের আবু ছিদ্দিকের ছেলে মো. মামুন (২৫) বলে জানা গেছে।

দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে ২ বিজিবির সম্মেলন কক্ষে অধিনায়ক বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, ইয়াবার একটি বিশাল চালান মিয়ানমার হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। এমন সংবাদে বিজিবির একটি বিশেষ টহলদল ভোররাতে নাফ নদীর পাড়ে কেওড়াবাগানে কৌশলে অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পরে নাফ নদী দিয়ে মিয়ানমার থেকে নৌকাযোগে এ পারে আসছিল ৩-৪ জনের একটি দল। বিজিবির টহল দল তাদের চ্যালেঞ্জ করলে বিজিবির উপর গুলি চালালে দুই সদস্য আহত হন।

পরে আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা একপর্যায়ে গুলি করেন। থেমে থেমে উভয় পক্ষে প্রায় সাত মিনিট গুলি বিনিময় হয়। পরে ওই এলাকায় তল্লাশি চালালে এক লাখ ইয়াবা, একটি এলজি, খোসা ও গুলিবিদ্ধ এক যুবককে পাওয়া যায়। সেই সময় আহতদের উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে সেখানে মামুনকে মৃত্যু ঘোষণা করা হয়।

তিনি আরো বলেন, সরকারী কাজে বাধা ও ইয়াবা বহনের দায়ের সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হাফিজুর রহমান বলেন, নিহত যুবকের লাশের ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।