🕓 সংবাদ শিরোনাম

ঢাকার পর শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর হচ্ছে চট্টগ্রামেও‘ভাই কবরে ,খুনি কেন বাহিরে’ শ্লোগানে শিক্ষার্থীদের কফিন মিছিলশিশুকে ডায়াবিটিস থেকে দূরে রাখতে কী কী সতর্কতা অবলম্বন করবেনদক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াকে তৈরি থাকার বার্তা দিল ”হু”বুড়িগঙ্গায় ’সাকার ফিশ’র দখলে, হুমকিতে দেশীয় মাছরোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির থেকে ধারালো অস্ত্রসহ আটক-৫করতোয়ার তীরে নিথর পড়ে ছিলো মস্তকহীন নবজাতক!গাজীপুরে দুই শিশুকে ‘হত্যার’ পর ফ্যানে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা মা’য়ের!ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ: জাহাজ চলাচল বন্ধ; সহস্রাধিক পর্যটক আটকা সেন্টমার্টিনেআখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো নীলফামারীর তিনদিন ব্যাপী ইজতেমা

  • আজ রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

গাজীপুর প্রেসক্লাবে আবারও হামলা, ভাংচুর

Gazipur news
❏ মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৩, ২০২১ ঢাকা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর: গাজীপুরে সরকারী ভাবে নিবন্ধিত প্রেসক্লাব থেকে অনুমোদিত কমিটির নির্বাহী এবং সাধারণ সদস্যদের হেনস্থ করে বের করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর এ সন্ত্রাসী কাজে সহযোগিতা করার অভিযোগ মুক্তিযোদ্ধামন্ত্রীর ভাগিনা ও সংরক্ষিত আসনের এক এমপির ভাইয়ের বিরুদ্ধে। এ সময় চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা ক্লাবের সিসিটিভি, ফাইল কেবিনেট, চেয়ার টেবিল, কম্পিউটার, নির্বাহী কমিটির নামের বোর্ড ভাংচুর ও সভাপতি. সাধারণ সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ এবং দপ্তর সম্পাদকের কক্ষে রক্ষিত গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র তছনছ করে।  ঘটনার সময় পুলিশকে অবহিত করলেও কোন ব্যবন্থা নেয়নি পুলিশ।

গাজীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মাজহারুল ইসলাম মাসুম সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, বিগত কয়েক মাসে বিভিন্ন সময়ে ক্লাবের উদ্যোগে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুনন্নেসার জন্মদিন, শেখ রাসেলের জন্মদিন, প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন, প্রধানমন্ত্রীর ক্রাউল জুয়েল প্রাপ্তির আনন্দ মিছিল, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবস, ৩রা নভেম্বর জেল হত্যা দিবস, শহীদ ময়েজ উদ্দিনের শাহাদাৎ বার্ষিকী, শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের জন্মদিনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়। ক্লাবের এসব কর্মসূচিতে মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে অতিথি করায় মেয়র বিরোধীরা পূর্ব থেকেই ক্ষুব্ধ ছিল।

গত ১৯ নভেম্বর মেয়রকে দল থেকে বহিস্কার করার পর মেয়র বিরোধীরা গত কয়েকদিন ধরেই ক্লাবের সামনে মহরা দিতে থাকে। এ ঘটনা জানিয়ে সদর মেট্রো থানার পুলিশের ইনচার্জকে লিখিতভাবে অবহিত করা হয়। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ২০টি মামলার দাগি আসামী মেহেদী হাসান নাহিদ ওরফে নাহিদ মোড়ল, তার সহযোগী ছাত্রলীগ নেতা সাইফুল্লা শাওন, মুক্তিযোদ্ধামন্ত্রীর সহোদর ভাগিনা মাসুদুল হক, সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ শামসুন্নাহার ভূইয়ার সহোদর ছোট ভাই রাহিম সরকারের নেতৃত্বে একদল সশস্্র সন্ত্রাসী ক্লাবে প্রবেশ করে ক্লাবের সাধারণ সম্পাদকে খুজঁতে থাকে এবং ক্লাবের উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে মারমুখি আচরণ করতে থাকে। এসময় তারা বিভিন্ন কক্ষে প্রবেশ করে সিসিটিভি, ফাইল কেবিনেট, চেয়ার টেবিল, কম্পিউটার, নির্বাহী কমিটির নামের বোর্ড ভাংচুর এবং সাধারণ সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ ও দপ্তর সম্পাদকের কক্ষে রক্ষিত গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র তছনছ করতে থাকে। বর্তমান কমিটির নির্বাহী সদস্য প্রতাপ কুমার গোপ, কোষাধ্যক্ষ কামাল হোসেন বাবুল ঘটনার প্রতিবাদ করলে তারাসহ আন্যন্য সাংবাদিকদের অশ্লিল ভাষায় গালমন্দ এবং হেনস্থ করে প্রেসক্লাব থেকে বের কেরে দেয়।

ঘটনার বিষয়ে মেট্রো সদর থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম জানান, আমি ঘটনা শুনেছি এবং ব্যবস্থা নিচ্ছি।

এদিকে সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবি জানান।

উল্লেখ্য, গত ২০ নভেম্বর গাজীপুরের মেয়রের সংবাদ সংগ্রহের কাজে সদস্যরা ক্লাবের বাহিরে থাকা অবস্থায় এই একই ব্যক্তিরা ক্লাবের মুল ফটকের তালা কেটে ভিতরে প্রবেশ এবং ভাংচুর চালিয়ে ছিল।