• আজ বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

যে কারনে মর্মান্তিক আবেগের গল্প মা’য়ের প্রধান চরিত্রে দেখা মিলবে পরীমনীর

মা'য়ের গল্পে
❏ বুধবার, নভেম্বর ২৪, ২০২১ বিনোদন

বিনোদন প্রতিবেদক,সময়ের কণ্ঠস্বরঃ  সিনেমার নাম ‘মা’। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে মৃত ঘোষিত সাত মাস বয়সী এক সন্তানকে নিয়ে তার অসহায় মায়ের আবেগের গল্পই উঠে আসবে এতে। আর সেই মায়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন পরীমণি।

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় এরই মধ্যে প্রথম লটের শুটিং শেষ হয়েছে। পরের লটে পরীমণির অংশ নেওয়ার কথা। এই লটে শুটিং করেছেন আবুল কালাম আজাদ, সাজু খাদেম, জুঁই করিম, ফারজানা ছবি, শাহাদৎ হোসেন লাবণ্য প্রমুখ।

সিনেমা নিয়ে পরিচালক জানিয়েছেন, মহান মুক্তিযুদ্ধকালীন এক মা ও একটি বাচ্চার গল্পকে কেন্দ্র করে নির্মিত হচ্ছে সিনেমা ‘মা’। ছবিতে মায়ের চরিত্রে অভিনয় করবেন পরীমণি।

এমন চরিত্রের জন্য পরীমনিকে কেন চূড়ান্ত করলেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে পরিচালক জানিয়েছেন, ‘পরীমনির প্রতি এক ধরনের শ্রদ্ধা কাজ করেছিল বোট ক্লাবের ঘটনার পর। এর আগে পরীমনির ব্যাপারে ধারণা ছিল না। তার প্রতিবাদের বিষয়টি ভালো লেগেছে।

নিজের অবস্থান ঠিক রাখার জন্য তিনি সাহস দেখিয়েছেন। তারপর থেকে তার প্রতি আলাদা একটা শ্রদ্ধা তৈরি হয়েছে। সব মিলিয়ে দেখলাম, পরীমনি এখন দেশের অন্যতম আলোচিত এবং প্রতিবাদী একটি চরিত্র। তখনই ভাবলাম, তাহলে পরীমনি কেন না? জামিনের পর পরীমনির সঙ্গে বসলাম, তিনি আগ্রহী হলো। তারপরই তাকে নিলাম।’

পরিচালক জানিয়েছেন, ‘মা’ সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রের অভিনেত্রী পরীমনির জন্য একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম।

মাহী ফ্লোরার কথায় যৌথভাবে গানটির মাহাদী ও মুন্তাসির সুর করেছেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়; গানের সংগীতায়োজন করেছেন মুন্তাসির তুষার।

পরিচালক জানিয়েছেন, সিনেমায় মায়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন পরীমনি; সিনেমায় তার নবজাতককে স্বাগত জানানোর অনুষ্ঠানে গানটি ব্যবহার করা হবে ।

তিনি জানিয়েছেন,” গানটি মুলতঃ কাওয়াল ফরমেটের।”

নির্মাতা বলেন, ‘গানটি সুর তৈরির আগ পর্যন্ত আমরা মমতাজের কথা ভাবিনি। ডামি তৈরি পর আমরা অনুভব করি, এই গানটি উনাকে ছাড়া সম্ভব নয়। উনিও গানটি শুনে সাথে সাথে সম্মতি দিয়েছেন। উনার সঙ্গে গানটি করে মনে হলো, তার গানই শুধু মন ভালো করে দেয় না, হাসিটাও মন ভালো করার জন্য মহৌষধ।”

‘মা’ সিনেমায় মমিনুলের চরিত্র অভিনয় করছেন সাজু খাদেম। পাকিস্তানি আর্মির সহযোগী হিসেবে দেখা যাবে তাকে। জানতে চাইলে সাজু খাদেম বলেন, ‘১৯৭০’র নির্বাচন থেকে শুরু করে আমাদের দেশ স্বাধীন হওয়ার পর্যন্ত গল্প। পুরো দেশের অবস্থা একটি গ্রামের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে। আমার চরিত্রের নাম মমিনুল। পাকিস্তানের স্বপক্ষের একটি দলের নেতা। গল্পে আমার তিন বউ।’

‘মা’ সিনেমার গল্প লিখেছেন পুলক কান্তি বড়ুয়া। পরিচালনার পাশাপাশি এ সিনেমার চিত্রনাট্যও করেছেন অরণ্য আনোয়ার। ২০২২ সালে সিনেমাটি মুক্তির পরিকল্পনা করছেন নির্মাতা। প্রথম লটের চিত্রায়ণ শেষে পোস্ট প্রডাকশনের কাজ শুরু করবেন নির্মাতা। ভিএফএক্সের মাধ্যমে ব্রিজ, পাকিস্তানি ক্যাম্প উড়িয়ে দেওয়ার কাজ করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, ইতোমধ্যে সিনেমার শুটিং শুরু হলেও পরীমনি তাতে অংশ নিচ্ছেন জানুয়ারিতে।

একটি মর্মান্তিক সত্য ঘটনা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে সিনেমাটির চিত্রনাট্য তৈরি করেছেন অরণ্য আনোয়ার নিজেই।

তিনি জানান, ১৯৭১ সালে মৃত ঘোষিত সাত মাস বয়সী এক সন্তানকে নিয়ে তার অসহায় মায়ের আবেগের গল্পই উঠে আসবে এতে।

‘মা’ প্রযোজনা করছেন যৌথভাবে প্রকৌশলী পুলক কান্তি বড়ুয়া ও অরণ্য আনোয়ার।

এতে আরও অভিনয় করছেন আজাদ আবুল কালাম, সাজু খাদেম, ফারজানা ছবি, রেবেনা করিম জুঁই, শিল্পী সরকার অপু, লাবণ্য, শাহাদাত হোসেন প্রমুখ।