• আজ বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

”অবসরের ঘোষণা দেবার সিদ্ধান্ত সহজ ছিল না” : রিয়াদ

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ
❏ বুধবার, নভেম্বর ২৪, ২০২১ খেলা

সময়ের কণ্ঠস্বরঃ টেস্ট ক্রিকেট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আনুষ্ঠানিকভাবে টেস্ট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেও এই সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ ছিল না বলে জানিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে এই ক্রিকেট সুপারস্টার ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের প্রতি।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাতে বিসিবি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে, টেস্ট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অবসর নিয়েছেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

অবসরের ঘোষণা দিয়ে রিয়াদ বলেন, টেস্ট দলে ফেরার পর আমাকে সমর্থন করায় বিসিবি সভাপতির প্রতি কৃতজ্ঞতা। আমার টেস্ট সামর্থ্যের ওপর বিশ্বাস রাখা এবং আমাকে সব সময় সমর্থন জোগানোর জন্য সতীর্থ ও কোচিং স্টাফের সবার প্রতি কৃতজ্ঞ। দেশের হয়ে টেস্ট খেলতে পারা পরম সম্মান ও সৌভাগ্যের বিষয়। এই স্মৃতি আমি সব সময় মনে রাখব।

রিয়াদ আরও বলেন, যে সংস্করণে এতদিন ধরে খেলেছি সেটি ছেড়ে দেওয়া সহজ নয়। সব সময় এটি নিয়ে চিন্তা করেছি। আমি মনে করি এটাই আমার টেস্ট ক্যারিয়ারকে বিদায় জানানোর সঠিক সময়।

জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিয়ে দীর্ঘ ১৬ মাস পর টেস্ট দলে ফিরে দেড়শ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন মাহমুদউল্লাহ। তখনই তিনি অবসরের কথা জানান সতীর্থদের। ওই ম্যাচ চলাকালে বা ম্যাচ শেষেও রিয়াদ অবসরের ব্যাপারে কোথাও আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা দেননি। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর গুঞ্জন ওঠে মাহমুদউল্লাহ টেস্ট থেকে বাদ পড়ছেন। সেই গুঞ্জন সত্যিও হয় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচের পর, পরের টেস্ট থেকে বাদ পড়েন।

এ পর্যন্ত বাংলাদেশের হয়ে ৫০টি টেস্ট খেলেছেন রিয়াদ। এই ফরম্যাটে আছে পাঁচটি শতক ও ১৬টি অর্ধশতক। ৩৩.৪৯ গড়ে রান করেছেন ২৯১৪। টেস্টে বাংলাদেশের ষষ্ঠ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। পার্টটাইম বোলিংয়ে নামের পাশে আছে ৪৩টি উইকেট। ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক হিসেবে ৬টি টেস্টে দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, এ বছরের জিম্বাবুয়ে সফরের টেস্ট দলে রিয়াদকে হুট করে দলে ডাকা হয়। প্রথমে তাকে দলে রাখা হয়নি, এ নিয়ে তৈরি হয় বিতর্ক। শেষপর্যন্ত নির্বাচকরা টেস্ট স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করেন রিয়াদকে।

১৬ মাস পর টেস্টে ফিরে হারারেতে ১৫০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলার পরই অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন রিয়াদ। সেই সিদ্ধান্তের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এল বুধবার।