• আজ সোমবার, ১০ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২৪ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

বগুড়ায় চেয়ারম্যান পদে ভাইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বী ভাই!

Bogura news
❏ শনিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২১ রাজশাহী

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ার চতুর্থ ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে নন্দীগ্রাম উপজেলায় ৩নং ভাটরা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ভোটযুদ্ধে নেমেছেন সহোদর দুই ভাই। বড় ভাই মোরশেদুল বারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান। ছোট ভাই মজনুর রহমান মজনু ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য। তাদের বাবা মরহুম জালাল উদ্দিন ভাটরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন।

দলীয় সূত্র জানা গেছে, মোরশেদুল বারী ও মজনুর রহমান মজনু চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোট করার জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম তুলেছেন। আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোরশেদুল বারী। এদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য মজনুর রহমান মজনু। একই ইউনিয়নে একই পদে একই পরিবারের দুই ভাই চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হওয়ায় ভোটারদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তারা দুজনেই মরহুম জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যানের ছেলে। এজন্য তারা দুজনেই বাবার সেই পদে যেতে চায়। এছাড়া দুই ভাইয়ের মধ্যে পারিবারিক কোন্দল রয়েছে। ফলে কেউই কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। অনেক ভোটার কাকে ভোট দেবে এ নিয়ে বিপাকে আছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোরশেদুল বারী বলেন, আমি গত ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছি। এবারও জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে। আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে এলাকার অনেক উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। আমার বিশ্বাস এ নির্বাচনেও আমি জয়লাভ করব।

ছোট ভাই মজনুর রহমান মজনু বলেন, আমার বাবা মরহুম জালাল উদ্দিন ভাটরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন। তার মৃত্যুর পর দীর্ঘদিন ধরে বড় ভাই চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন। এ সময় তিনি বিভিন্ন দুর্নীতি-অনিয়মে জড়িয়ে পড়েছেন। এতে করে বাবার ঐতিহ্য নষ্ট করে ফেলেছে। এ কারণেই আমি চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র হয়ে ভোট করছি। আশা করি ভোটারবৃন্দ আমাকে বিমুখ করবেন না।