• আজ মঙ্গলবার, ৪ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৮ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো নীলফামারীর তিনদিন ব্যাপী ইজতেমা

আখেরী মোনাজাতে
❏ শনিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২১ দেশের খবর, রংপুর

নীলফামারী প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বরঃ দেশের কল্যাণ, দুনিয়া ও আখেরাতের শান্তি কামনা করে আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে আজ শনিবার শেষ হলো তিনদিন ব্যাপী চলা নীলফামারীর ইজতেমা।

সদরের নগর দারোয়ানী সুতাকল সংলগ্ন (টেক্সটাইল মিল) বিশাল মাঠে আয়োজিত এই ইজতেমার আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হলো আজ।

আখেরি মোনাজাতে আত্মশুদ্ধি ও নিজ নিজ গুনাহ মাফের পাশাপাশি দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে হেফাজত করার জন্য দুই হাত তুলে মহান আল্লাহর দরবারে রহমত প্রার্থনা করা হয়। এ সময় ‘আমিন, আল্লাহুম্মা আমিন’ ধ্বনিতে আকাশ-বাতাস মুখরিত হয়ে ওঠে।

মোনাজাত পরিচালনা করেন ঢাকাস্থ কাকরাইল জামে মসজিদের মাওলানা আব্দুল্লাহ মনসুর। তিনি আরবি ও বাংলা ভাষায় মোনাজাত পরিচালনা করেন।

সকালে দিক-নির্দেশনামূলক বয়ানের পর লাখো মানুষের প্রতীক্ষার অবসান ঘটে সকাল ১২টা ২০ মিনিটে। জনসমুদ্রে হঠাৎ নেমে আসে পিনপতন নীরবতা। যে যেখানে ছিলেন সেখানে দাঁড়িয়ে কিংবা বসে হাত তোলেন আল্লাহর দরবারে। কান্নায় বুক ভাসান তারা।

২৫ মিনিটব্যাপী মোনাজাতে প্রথম মূলত পবিত্র কোরআনে বর্ণিত দোয়ার আয়াতগুলো উচ্চারণ করেন। শেষ ১১ মিনিট দোয়া করেন বাংলা ভাষায়।

আজকের আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে শনিবার সকালে চার দিক থেকে হাজার হাজার মুসল্লি পায়ে হেঁটেই নীলফামারীর ইজতেমাস্থলে পৌঁছেন। সকাল ১১টার আগেই ইজতেমা মাঠ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে মুসল্লিরা মাঠের আশপাশের রাস্তা, অলি-গলি অবস্থান নেন।

মোনাজাতে বলেন, হে আল্লাহ আমাদের ইমানকে আরো মজবুত করে দেন। হে আল্লাহ আমাদের আপনার বান্দা হিসেবে কবুল করে নেন। জিন্দেগিতে আমাদের যতো পাপ আছে তার সব মাফ করে দেন। সারা বিশ্বের মুসলমানদের আপনি শান্তি কবুল করে দেন। জিন্দেগি থেকে নফরমানি দূর করে দেন।

মোনাজাতে আরও বলা হয়, হে আল্লাহ তুমি তো ক্ষমাশীল, তোমার কাছেই তো আমরা ক্ষমা চাইব। দ্বীনের ওপর আমাদের চলা সহজ করে দাও। হে আল্লাহ, তুমি আমাদের ওপর সন্তুষ্ট হয়ে যাও। আমরা যেন তোমার সন্তুষ্টি মাফিক চলতে পারি সে তওফিক দাও। দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে আমাদের হেফাজত করো। নবীওয়ালা জিন্দেগি আমাদের নসিব করো।

ইজতেমায় নারীদের অংশ নেয়ার কোনো বিধান না থাকলেও আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে বিভিন্ন এলাকা থেকে বিভিন্ন বয়সী কয়েক হাজার নারী আগের দিন রাত থেকে ইজতেমা ময়দানের আশপাশে আখেরি মোনাজাতের ফজিলত লাভের আশায় তারা মোনাজাতে শরিক হতেই ময়দানের আশপাশের এলাকায় পর্দার সঙ্গে অবস্থান নেন।

গত বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজ শেষে আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা। এতে নীলফামামারী ছয় উপজেলার মুসল্লি ছাড়াও অংশ নেন পঞ্চগড়, দিনাজপুর ও রংপুর জেলার মুসল্লিরা।