• আজ শুক্রবার, ৭ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২১ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

প্রতিমন্ত্রী মুরাদের মন্তব্যে নারীপক্ষের ক্ষোভ

murad n23
❏ সোমবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২১ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান এবং তার মেয়ে জাইমা রহমানকে নিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের সাম্প্রতিক কিছু মন্তব্যকে ‘অশ্রাব্য’ উল্লেখ করে এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ‘নারীপক্ষ’।

রোববার (০৫ ডিসেম্বর) নারী অধিকার নিয়ে কাজ করা বেসরকারি সংস্থাটির আন্দোলন সম্পাদক তামান্না খান পপি স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে এই ক্ষোভ প্রকাশ করে সংগঠনটি।

বিবৃতিতে বলা হয়, বর্তমান সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান গত ৪ ডিসেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক সাক্ষাৎকারে সাবেক বিরোধীদলীয় নেত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, তার ছেলে তারেক রহমান এবং নাতনি জাইমা রহমান সম্পর্কে যে নোংরা গালাগালি করেছেন এর জন্য তার বিরুদ্ধে কোনো প্রকার শাস্তিমূলক পদক্ষে নেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়নি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, কোনো নারীকে গালি দেওয়া এবং নারী বিদ্বেষী ও বর্ণবাদী কথন কী করে একজন জনপ্রতিনিধি কেবল নয়, মন্ত্রী পরিষদের সদস্যও বটে, উচ্চারণ করতে পারেন এবং এর জন্য আবার গর্ব প্রকাশ করেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, বর্তমান সরকার দাবি করেন যে তারা নারীবান্ধব। নারীর প্রতি ন্যূনতম সম্মান রেখে কথা বলতে পারেন না সেই ব্যক্তি তারপরও কী করে পদে বহাল থাকেন?

নারীপক্ষের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ প্রত্যাশা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১ ডিসেম্বর রাতে ‘অসুস্থ খালেদা, বিকৃত বিএনপির নেতাকর্মী’ শিরোনামে এক ফেসবুকে লাইভে যুক্ত হন মুরাদ হাসান। লাইভটির সঞ্চালক ছিলেন নাহিদ রেইনস নামে এক ইউটিউবার ও ফেসবুকার।

লাইভে বিএনপির রাজনীতি সমালোচনার একপর্যায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ও দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কন্যা জাইমা রহমানকে নিয়ে তিনি বিভিন্ন মন্তব্য করেন। এ ছাড়া বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জন্ম ও পরিবার নিয়েও কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।