🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ শুক্রবার, ১৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ২ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

ই-ভ্যালি কান্ডে প্রতারণার মামলা নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানালেন শবনম ফারিয়া

শবনম ফারিয়া
❏ শুক্রবার, ডিসেম্বর ১০, ২০২১ বিনোদন

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা: ইভ্যালির কর্মকাণ্ডে সহযোগিতার অভিযোগে তাহসান-মিথিলা-শবনম ফারিয়াসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় মামলার ঘটনায় তাহসানের পরে এবার নিজের প্রতিক্রিয়া জানালেন শবনম ফারিয়া।

শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) প্রতিষ্ঠানটির জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করা শবনম ফারিয়া সাংবাদিকদের বলেন, ‌‘আমাকে হয়রানি করার জন্যই এ মামলা করা হয়েছে। কেন হয়রানি, কী জন্য হয়রানি, সেটা তো আমি জানি না। আর থানা পুলিশ বলেছে, তারা বিষয়টি তদন্ত করে দেখবে আমার সম্পৃক্ততা আছে কিনা। আমি শিওর, তারা আমার সম্পৃক্ততা পাবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাকে যে কয়েকটা কারণে অপরাধী দেখানো হয়েছে- সেগুলোর সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। আর আমি এখনো ইভ্যালি থেকে এক টাকাও পাইনি। প্রমোশন করলে আমি সেটার জন্য অনেক টাকা নেই। তাদের কাছ থেকে বেতনের টাকা নিয়ে আমি প্রমোশন করবো না বলে চাকরি নেওয়ার আগেই জানিয়েছি।’

ফারিয়া জানালেন, ‘ইভ্যালি নিয়ে আমি ফেসবুকে কোনো রকম পোস্ট শেয়ার করিনি। কারণ, আমি জয়েন করতে করতেই ওদের ঝামেলা শুরু হয়ে যায়। আমি কোনো কাজই করতে পারিনি তাদের সঙ্গে। আমি যে মাসে ইভ্যালিতে জয়েন করি, সে মাসে ইভ্যালির যে পেমেন্টের পয়েন্ট ছিল তা ৭ দিন পরই বন্ধ হয়ে গেছে। সরকার বাংলাদেশে ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা নেওয়া শুরু করেছে।

এর আগে ইভ্যালি কান্ডে তাহসান-মিথিলা-ফারিয়াসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও অর্থআত্মসাতের অভিযোগে মামলার পর মামলা নিয়ে নিজের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন জনপ্রিয় গায়ক ও অভিনেতা তাহসান।

তার বিরুদ্ধে করা মামলার প্রতিবাদে তিনি নিজেও মানহানি মামলা করবেন জানিয়েছেন তাহসান। শুক্রবার দিনব্যাপি গণমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন সংবাদের শিরোনাম ‘যেকোনো সময় গ্রেপ্তার হতে পারেন তাহসান, মিথিলা, ফারিয়া …’ ইত্যাদি শিরোনাম নিয়েও বেশ চটেছেন তাহসান।

গণমাধ্যমের উপর চটেছেন তাহসান, জানালেন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া!

উল্লেখ্য, গত ১৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে র‍্যাব সদরদপ্তরের গোয়েন্দা দল ও র‍্যাব-২ রাজধানীর মোহাম্মদপুরের স্যার সৈয়দ রোডের বাড়িতে অভিযান চালায়। প্রায় দুই ঘন্টার অভিযান শেষে গুলশান থানায় একজন ভুক্তভোগীর মামলা গ্রেপ্তার দেখিয়ে রাসেল ও তার স্ত্রীকে র্যাব সদর দপ্তরে নেওয়া হয়। সেখানেই তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গুলশান থানায় হস্তান্তর করা হয়।

আগের সংবাদ

গ্রাহকের টাকা আত্মসাৎ’র অভিযোগে তাহসান-মিথিলা-ফারিয়ার বিরুদ্ধে মামলা