• আজ শুক্রবার, ১৪ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২৮ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

বিএনপি নেতা আলালকে গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ বিচারের দাবি শিক্ষামন্ত্রীর

আলালকে গ্রেফতার
❏ শনিবার, ডিসেম্বর ১১, ২০২১ ফিচার

ঢাকা: ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ কটূক্তি করেছেন যা কোনভাবেই কাম্য নয়’ বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

দেশের যে প্রচলিত আইনে এ ধরনে ঔদ্ধত্যপূর্ণ কটূক্তির বিরুদ্ধে যথাযথ আইন প্রয়োগের কামনাও করেছেন তিনি।

শনিবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে বঙ্গভবনের দক্ষিণ পাশে টিকাটুলিতে শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ে বিএনপি নেতা আলালের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, বিএনপির  তথাকথিত রাজনীতির পুরোটাই অপরাজনীতি। এই দেশটাকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত। সেই ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তকারিদেরই একজন মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল যে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করেছেন তার প্রতিবাদে এই কর্মসূচি। আমি শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একাত্মতা জানাতে এসেছি। আমি আশাকরি তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কারণ কোনো সুস্থ সমাজে এটি নিশ্চয় গ্রহণযোগ্য নয়।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, যারা পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করে, নাশকতা করে, যুদ্ধাপরাধী ও স্বাধীনতা বিরোধীদের দোসর তাদের কোনভাবেই রাজনীতি বলা যায় না। কোনো রাজনীতি কখনো যুদ্ধাপরাধীদের দোসর হতে পারে না। সুস্থ ধারার কোনো রাজনীতি আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা, ইতিহাস বিকৃতি করতে পারে না।

তিনি বলেন, সারা দেশ আজ ক্ষুব্ধ তার কারণ এ ধরনের অসদাচারণ কখনোই কারো কাছেই কাম্য নয়। আমাদের দেশে যে প্রচলিত আইন রয়েছে এ ধরনে ঔদ্ধত্যপূর্ণ কটূক্তির বিরুদ্ধে সে আইন প্রয়োগ করা হোক, আমি সেটি কমনা করি।

ডা. দীপু বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং এগিয়ে যাবে ইনশাল্লাহ। কোথাও কোনো প্রতিবন্ধকতা আমরা সৃষ্টি করতে চাই না। এমন কোনো কর্মসূচি দিতে চাইনা যাতে কোথাও কোনো ধরনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়। আমাদের সব প্রতিবাদ হবে শান্তিপূর্ণ এবং সুশৃঙ্খল।

মানববন্ধনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে মিথ্যা কটূক্তিকারী বিএনপি নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলালকে গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ বিচারের দাবি জানিয়েছে শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে আলালকে জাতির কাছে ক্ষমা চাই হবে বলে জানান তারা। এছাড়া ঢাকাসহ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নারী শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের নিয়ে আন্দোলন করার কথা জানান তারা।

মানববন্ধনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবু আহমেদ মুন্নাফী, শেরে বাংলা বালিকা মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মনোয়ার হোসেন, যাত্রাবাড়ি আইডিয়াল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত ভাইস প্রিন্সিপাল মরিয়ম হোসেন, নারিন্দা স্কুলের হেড মিসেস হোসনে আরা বেগম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন শেষে বিএনপি নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের কুশপুতুল পোড়ানো হয়।