• আজ মঙ্গলবার, ২১ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৬ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

এবার মুরাদ হাসানের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা

ctg n234
❏ রবিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০২১ আলোচিত বাংলাদেশ, চট্টগ্রাম, দেশের খবর

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ কটুক্তির অভিযোগে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এমপি ও বিতর্কিত ইউটিউবার মোঃ মহিউদ্দিন হেলাল নাহিদ প্রকাশ নাহিদ হেলাল বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

১২ই ডিসেম্বর রবিবার চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে বাদী হয়ে মামলাটি করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম চট্টগ্রাম ইউনিটের সভাপতি ও চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট এএসএম বদরুল আনোয়ার। পিটিশন মামলার নং ৩০৯/২১ (চট্টগ্রাম)।

এই সময় বিপুলসংখ্যক আইনজীবী শুনানিতে উপস্থিত ছিলেন।

ট্রাইব্যুনালের বিচারক অতিরিক্ত জেলা জজ এস. কে. এম. তোফায়েল হাসান মামলাটি আদেশ এর জন্য রেখেছেন।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৫/২৯/৩১/৩৫ ধারায় দায়ের করা অভিযোগে বলা হয়েছে, উপমহাদেশের অন্যতম রাজনৈতিক পরিবারের সদস্য, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান (বীর উত্তম) ও সাবেক তিনবারের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নাতনি এবং তাঁদের জোষ্ঠ পুত্র বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও ডা. জোবাইদা রহমান এর একমাত্র কন্যা ব্যারিষ্টার জাইমা রহমান ও জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যমূলকভাবে বিগত ১ ডিসেম্বর ২০২১ ইং আসামিদ্বয় ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে সামাজিক ও ব্যক্তিগতভাবে অপমান অপদস্ত ও হেয় প্রতিপন্ন করার অভিপ্রায়ে অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ ও অশ্লীলভাবে এবং নারীবিদ্বেষী ভিডিওটি প্রকাশ ও প্রচার করেছেন।

যাহা সার্বিকভাবে জিয়া পরিবারের সদস্যদের সাথে সমগ্র নারী সমাজের জন্য মানহানিকর এবং অপমানজনক। শিষ্টাচার বহির্ভূত এই ভিডিওটি দেশে রাজনৈতিক সম্প্রদায়ের মধ্যে শত্রুতা ঘৃণা বিদ্বেষ অস্থিরতা সৃষ্টি করেছে। দেশের আপামর সর্বস্তরের জনসাধারণের মধ্যে প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। যার ফলে দেশে ব্যাপক আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।

এর আগে একই অভিযোগে রোববার সকালে ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার আবেদন করেন ঢাকা বারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক ফারুকী।

বিচারক ছুটিতে থাকায় আগামীকাল সোমবার শুনানির তারিখ রাখা হয়েছে।