• আজ সোমবার, ৩ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

সন্তানের রক্তাক্ত শরীর দেখে ঘটনাস্থলেই মারা গেলেন বাবা

lash 5234
❏ বুধবার, ডিসেম্বর ১৫, ২০২১ দেশের খবর, রাজশাহী

আব্দুল লতিফ রঞ্জু, পাবনা প্রতিনিধি- দুইপক্ষের সংঘর্ষে আহত ছেলে শাহাদত হোসেন মন্ডল (৩২) এর রক্তাক্ত শরীর দেখে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন বাবা মোক্তার হোসেন (৭৫)।

মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) দুপুরে পাবনার চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের সিদ্ধিনগর পশ্চিমপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোক্তার ওই গ্রামের মৃত বাছির মন্ডলের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, মোক্তার মন্ডলের ছেলে শাহাদত মন্ডল ও জলিল মন্ডলের ছেলে নুরুল ইসলাম সম্পর্কে আপন চাচাতো ভাই। তারা দুইজন একসঙ্গে পুকুর কেনা এবং মাছের ব্যবসা করে আসছেন। ব্যবসায়িক লেনদেন নিয়ে দুপুরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ হলে নুরুল ইসলাম বটি ও দা দিয়ে শাহাদত মন্ডলকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। খবর পেয়ে আহতের বাবা মোক্তার হোসেন ঘটনাস্থলে গেলে ছেলের রক্তাক্ত শরীর দেখে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তাকে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করা হয়।

এছাড়া আহত ছেলেকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক পাবনা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

পরিবারের স্বজনরা জানায়, মৃত মোক্তার হোসেন দীর্ঘদিন যাবত হৃদরোগ, ডায়াবেটিসসহ নানারোগে আক্রান্ত ছিলেন। তবে ছেলেকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শাস্তি চান তারা।

চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পরপরই জড়িতরা পালিয়ে গেছে। তাদের আটকের চেষ্টা চলছে। পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় মৃতের মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

তবে সংঘর্ষের ঘটনায় তারা লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।