• আজ সোমবার, ৩ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

দেশের উন্নয়নকে অস্বীকার করাও দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র: কাদের

ওবায়দুল কাদের
❏ রবিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০২১ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন হচ্ছে। উন্নয়ন ও অগ্রগতির স্বীকৃতি দিলে ভবিষ্যত বিনির্মাণ গতিশীল হয়। একে অস্বীকার করাও এক ধরনের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের সামিল।

রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ দাবি করেন তিনি। আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গণমাধ্যমে এ বিবৃতি পাঠানো হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সমগ্র জাতি বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ মুজিববর্ষ মহা-আড়ম্বরে উদযাপন করেছে। এমন মহতি ক্ষণে একটি রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি দেশের ভবিষ্যত প্রজন্মের সামনে কোনো ইতিবাচক রাজনৈতিক কর্মসূচি তুলে না ধরে চিরাচরিতভাবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী অপতৎপরতায় লিপ্ত রয়েছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক ও লজ্জাকর।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল স্বাধীনতার ৫০ বছরে কোনো প্রাপ্তি খুঁজে পাননি! তার এই না পাওয়ার মর্মবেদনার উৎসমূল সম্পর্কে আমরা উপলব্ধি করতে পারি স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তির উত্তরাধিকার এবং একাত্তরের ঘাতক-যুদ্ধাপরাধীদের পৃষ্ঠপোষক বিএনপি ও তাদের নেতা মির্জা ফখরুলের এই হতাশা ও মর্মবেদনাই দেশের গণতান্ত্রিক রাজনীতির পথ বিকাশের প্রধান অন্তরায়।’

বিভিন্ন ক্ষেত্রে সরকারের উন্নয়নের পদক্ষেপগুলো তুলে ধরে তিনি বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছরে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একসময়ের মঙ্গা-খরা ও দুর্যোগ-দুর্ভিক্ষকবলিত এবং দারিদ্র্যপীড়িত বাংলাদেশ জাতিসংঘ কর্তৃক স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকা থেকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে উত্তরণের স্বীকৃতি অর্জন করেছে। তখন বিএনপি নেতারা কোনো প্রাপ্তি খুঁজে পাবেন না- এটাই ‘স্বাভাবিক’।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দেশের অগ্রগতিতে জাতিদ্রোহী-দেশদ্রোহীদের যেমন গাত্রদাহ হয়- ঠিক তেমনি বিএনপি নেতাদেরও সহ্য হয় না।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি নামের দলটি মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির অপরাজনীতিতে লিপ্ত। তারা ত্রিশ লাখ শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহণ করে। তাদের কাছ থেকে স্বাধীনতার ৫০ বছরে কোনো প্রাপ্তি খুঁজে পাইনি- এ ধরনের মন্তব্যই স্বাভাবিক।’

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাঙালি জাতি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ভাসিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নযাত্রা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। যে বাংলাদেশ এক সময় বৈদেশিক ঋণ ছাড়া কোন প্রকল্প গ্রহণ করতে পারত না সেই বাংলাদেশ শেখ হাসিনার দৃঢ় রাষ্ট্রনায়কোচিত ভূমিকার কারণে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতুর মত মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করে নিজেদের সক্ষমতার জানান দিচ্ছে। দক্ষিণ এশিয়ায় ডিজিপিতে প্রথম স্থান অধিকারের অনন্য মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্বসভায় বাংলাদেশ যখন প্রশংসা ও সমীহ অর্জন করছে তখন, স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির প্রতিভূ বিএনপি নেতারা নেতিবাচক মন্তব্য করে জাতিকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।