• আজ বুধবার, ১২ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২৬ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

নাসির-তামিমার জামিন মঞ্জুর


❏ সোমবার, ডিসেম্বর ২০, ২০২১ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ডিভোর্স ছাড়া অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তার স্ত্রী বিমানের কেবিন ক্রু তামিমা সুলতানা তাম্মিসহ তিনজনের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) শুনানি শেষে ঢাকা অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন আদালত এই জামিনে আদেশ দেন। মামলার অপর আসামি হলেন— তামিমার মা সুমি আক্তার।

এদিন সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে শুনানি শেষে বিচারক জামিনের এই আদেশ দেন।

এর আগে গত ৩১ অক্টোবর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসীমের আদালতে আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন। এরপর মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত হওয়ায় বদলির আদেশ দেওয়া হয়। এদিন সংশ্লিষ্ট আদালতে আইনজীবীর মাধ্যমে জামিন আবেদন করেন তারা। শুনানি শেষে আদালত তাদের জামিনের আদেশ দেন।

আজ মামলাটি চার্জশুনানির জন্য ধার্য ছিল। চার্জশুনানির জন্য যথেষ্ট প্রস্তুত নন জানিয়ে সময় আবেদন করেন তাদের আইনজীবী কাজী নজীব উল্যাহ হিরু। শুনানি শেষে আদালত সময় আবেদন মঞ্জুর করে আদালত আগামী ২৪ জানুয়ারি চার্জশুনানির তারিখ ধার্য করেন।

এদিকে নিয়মিত আদালতে আসতে অসুবিধা হচ্ছে জানিয়ে তিনজনই ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি চেয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে হাজিরার আবেদন করেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী ইশরাত হাসান এর বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আবেদনটি নামঞ্জুর করেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী ইশরাত হাসান এসব তথ্য জানান।

ইসলামি শরিয়াহ অনুযায়ী ক্রিকেটার নাসির ও এয়ার হোস্টেজ তামিমার বিয়ে বৈধ উপায়ে হয়নি বলে গত ৩০ সেপ্টেম্বর আদালতে প্রতিবেদন জমা দেয় পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

প্রতিবেদনে বলা হয়, তামিমার আগের স্বামী রাকিব হাসানকে ডিভোর্স দেয়াসংক্রান্ত কাগজপত্র জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে। নাসিরকে বিয়ের আগে রাকিবকে ডিভোর্স দেননি তামিমা। তাই নাসির-তামিমার বিয়ে আইনগতভাবে বৈধ হয়নি।

ইসলামি শরিয়াহ অনুযায়ী তালাকের কাগজ ছাড়া অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগে চলতি বছর ২৪ ফেব্রুয়ারি নাসির ও তার স্ত্রী তামিমার বিরুদ্ধে মামলাটি করেন রাকিব।

মামলায় তাদের বিরুদ্ধে বিয়ের তথ্য গোপন করে অন্যত্র বিয়ে, অন্যের স্ত্রীকে প্রলুব্ধ করে প্রতারণার মাধ্যমে বিয়ে, ব্যভিচার ও মানহানির অভিযোগ আনা হয়। আদালত পিবিআইকে মামলার বিষয়ে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমার নির্দেশ দেয়।

চলতি বছরের ভালোবাসা দিবসে জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে প্রেমিকা তামিমাকে বিয়ে করেন নাসির। তাদের দাবি, আইন মেনে ইসলামি শরিয়াহ অনুযায়ী বিয়ে করেছেন তারা।

তামিমার আগের স্বামী রাকিবের দাবি, বিয়ের খবর সংবাদমাধ্যমের মাধ্যমে জানার পর মামলাটি করেন তিনি।

রাকিব জানান, তামিমার সঙ্গে ১১ বছরের দাম্পত্য জীবন কাটিয়েছেন তিনি। তাদের ৮ বছরের কন্যাসন্তান রয়েছে। অথচ তাকে ডিভোর্স না দেয়ার পরও নাসির জেনেশুনে তামিমাকে বিয়ে করেন৷