সোনারগাঁয়ে নৌকা প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্পে আগুন

news n234
❏ সোমবার, ডিসেম্বর ২০, ২০২১ ঢাকা, দেশের খবর

সুমন আল হাসান, সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি- নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্পে অগ্নিসংযোগের অভিযোগ উঠেছে।

রোববার মধ্যরাতে উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের আনন্দবাজার দামোদরদী এলাকায় আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আল আমিন সরকারের নির্বাচনী এ ক্যাম্পে আগুন দেওয়া হয়। আগুনে ক্যাম্পে থাকা নৌকা প্রতীক পুড়িয়ে দেওয়া হয়।

এ ঘটনায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আল আমিন সরকারের বড় ভাই বাচ্চু সরকার বাদী হয়ে সোমবার সকালে সোনারগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার পর ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার বেদ্যেরবাজার ইউনিয়নের আনন্দবাজার দামোদরদী এলাকায় আল আমিন সরকারের নৌকা প্রতীকের একটি নির্বাচনী ক্যাম্প করা হয়। রোববার মধ্য রাতে দুর্বৃত্তরা ওই ক্যাম্পে অগ্নিসংযোগ করে। আগুনে বাঁশ ও কাপড়ের তৈরি নৌকা প্রতীকসহ ক্যাম্প পুড়ে যায়।

বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নবী হোসেন জানান, রোববার বিকেলে দামোদরদী এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহবুব সরকারের সমর্থকরা উঠান বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহবুব সরকারের সমর্থক জাবির, আল আমিন, রুহুল আমিন, আমির, কবির, মাজহারুল, মাহবুল ও গোলজার বিভিন্ন উষ্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়া হয়। ওই বক্তব্যের পর রাতে এ ক্যাম্পে আগুন দেওয়া হয়।

আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আল আমিন সরকার বলেন, নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য বিরোধী পক্ষ আমার এ ক্যাম্প আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেবো। আমরা কোন উশৃংখল করবো না। জনগন আমাকে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করবেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহবুব সরকার বলেন, আমার সমর্থকরা আগুন দেওয়ার সঙ্গে জড়িত না। তৃতীয় কোন পক্ষ নির্বাচনে উত্তেজনা সৃষ্টি করতে এ কাজ করতে পারে। আমি নিজে আগুন দেয়া ক্যাম্প পরিদর্শন করতে গিয়েছিলাম। উত্তেজনা হতে পারে বলে পুলিশের পরামর্শে আমি ফেরত এসেছি।

সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, নির্বাচনী ক্যাম্পে আগুন দেয়ার ঘটনায় অভিযোগ গ্রহণ করা হয়েছে। তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।