• আজ শুক্রবার, ৭ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ২১ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

ত্রিশালে স্থগিত কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ ৩০ ডিসেম্বর

up n23
❏ বুধবার, ডিসেম্বর ২২, ২০২১ দেশের খবর, ময়মনসিংহ

মামুনুর রশিদ, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি- ময়মনসিংহের ত্রিশালে স্থগিত দুই কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্ধারণ করে নির্দেশনা জারি করেছে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের কাকচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ও কানিহারী ইউনিয়নের তালতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

রামপুর ইউনিয়নের এই এক কেন্দ্রের ভোটের ফলাফলের উপর নির্ভর করছে কে এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন এবং ২ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ড সদস্য ও ৬ নং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য নির্বাচিত হবে।

অপরদিকে কানিহারী ইউনিয়নের এই এক কেন্দ্রের ভোটের ফলাফলের উপর নির্ভর করছে কে এই ইউনিয়নের ১ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ড সদস্য ও ২ নং সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য নির্বাচিত হবে।

এ দুটি কেন্দ্রের মধ্যে রামপুর ইউনিয়নের কাকচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোট ২ হাজার ৯৮২ ভোট ও কানিহারী ইউনিয়নের তালতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোট ২ হাজার ২৮০ ভোট।

রামপুর ইউনিয়নের কাকচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ফলাফলের উপর নির্ভর করছে ৪ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জয়-পরাজয়ের হিসাব। এ এক কেন্দ্রের ভোটের হিসেবে চার প্রার্থীরই সুযোগ রয়েছে জয়ী হওয়ার।

গেল নির্বাচনে আব্দুল মবিন রঞ্জুর প্রাপ্ত ভোট ৪ হাজার ৬৮৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্রপ্রার্থী শফিকুল ইসলাম মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪ হাজার ৩০৫ ভোট যা চশমা প্রতীকের চেয়ে ৩৮২ ভোট কম। ভোটের হিসেবে এর পরেই রয়েছে আনারস প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ শহিদুল আলম। তিনি পেয়েছেন ৩ হাজার ৫৩০ ভোট। যা চশমা প্রতীকের চেয়ে ১ হাজার ১৫৭ ভোট কম।

এই এক কেন্দ্র বাদে ভোটের হিসেবে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী আপেল মাহমুদ। তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩ হাজার ১৪৫ ভোট। যা চশমা প্রতীকের চেয়ে ১ হাজার ৫৪২ ভোট কম।

তবে নৌকার প্রার্থীর সমর্থকদের দাবি এটি তাদের নিজ কেন্দ্র। এই কেন্দ্রের প্রায় সব ভোট তাদের প্রার্থী পাবে। এই হিসেবে তাঁরাই জয়ী হবে।

অপরদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের দাবি স্থগিত কেন্দ্রে তাদের অনেক ভোট রয়েছে। আনারস প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থকরাও মনে করছে তারা জয় লাভ করবে।

সর্বশেষ সাধারণ ভোটারদের ধারণা সকল প্রার্থীদের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পূর্বাভাস পাওয়া যাচ্ছে।