• আজ মঙ্গলবার, ৪ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৮ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

শরীয়তপুরে ‌বাঁশের বেড়া দিয়ে রাস্তা নির্মাণে বাঁধার অভিযোগ

road n234
❏ বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২৩, ২০২১ ঢাকা, দেশের খবর

নয়ন দাস, শরীয়তপুর প্রতি‌নি‌ধি: শরীয়তপুর পৌরসভার উত্তর বালুচড়া মৌজার ৫নং ওয়ার্ডে পৌরসভার অর্থায়নে নতুন রাস্তা নির্মাণ কা‌জে বাঁধা দেওয়ার অ‌ভি‌যোগ উ‌ঠে‌ছে।

পৌর কর্তৃপক্ষের অ‌ভি‌যোগ, জেলা আওয়ামী লী‌গের সাধারণ সম্পাদক বাবু অনল কুমার দে’র শ্বশুর বা‌ড়ির লোকজন পৌরসভা‌কে রাস্তা নির্মা‌ণে দেওয়া জ‌মির মা‌ঝে বাঁ‌শ দি‌য়ে সীমানা নির্ধারণ ক‌রে ‌বেড়া ‌দি‌য়ে‌ছে। এ‌তে রাস্তা নির্মাণ কাজ বন্ধ র‌য়ে‌ছে। এ‌ নি‌য়ে গত ক‌য়েক‌দিন ধ‌রে শরীয়তপুরে ব্যাপক চাঞ্চল্যকর প‌রি‌স্থি‌তি সৃ‌ষ্টি হ‌য়ে‌ছে। অ‌নে‌ককেই এ নিয়ে বি‌ভিন্ন ধর‌ণের মন্তব্য করতে দেখা গে‌ছে।

স‌রেজ‌মি‌নে দি‌য়ে দেখা যায়, শরীয়তপুর পৌরসভার নিজস্ব অর্থায়নে উত্তর বালুচড়া লিটন সরদারের বাড়ি থেকে রশিদ সরদারের বাড়ি পর্যন্ত ৬শ ফিট দীর্ঘ ও ৮ ফিট প্রস্থ ইটের সলিং রাস্তা নির্মাণের কাজ শুরু ক‌রে‌ছে পৌর কর্তৃপক্ষ। রাস্তা‌টি বাস্তবায়‌নের জন্য একজন ঠিকাদারও নি‌য়োগ করা হ‌য়ে‌ছে।

সেই নি‌য়োগকৃত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ বাস্তবায়ন কর‌তে গি‌য়ে জেলা আওয়ামী লী‌গের সাধারণ সম্পাদক বাবু অনল কুমার দে’র শ্বশুর নারায়ণ চন্দ্র দে’র প‌রিবা‌রের লোকজন বাঁ‌শের বেড়া দি‌য়ে রে‌খে‌ছে। তাই রাস্তা নির্মাণ কাজ বন্ধ রে‌খে‌ছে পৌরসভা। ৬শ ফিট রাস্তার ম‌ধ্যে অ‌ধিকাংশ কাজ শেষ ক‌রা হ‌য়ে‌ছে।

স্থানীয়রা জানায়, পৌরসভার অর্থায়নে নির্মতব্য এই রাস্তা ছাড়া এই এলাকার বাসিন্দাদের চলাচলের আর কোন রাস্তা নেই। এই রাস্তাটি এই এলাকার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, কারণ এখান দিয়েই অত্র এলাকাবাসীসহ বিভিন্ন এলাকার লোকজনের চলাচল রয়েছে। তাই জনস্বার্থে দ্রুত রাস্তাটি নির্মাণ খুবই জরুরি।

বাঁশের বেড়াকে কেন্দ্র ক‌রে এলাকার সর্ব-সাধারণের মধ্যে এ‌ নি‌য়ে ব্যাপক আ‌লোচনা ও অসন্তোষ প্রকাশ কর‌তে দেখা গে‌ছে।

কা‌জের ঠিকাদার ফরহাদ হো‌সেন ঢালী বলেন, পৌরসভার অর্থায়নে উত্তর বালুচড়া গ্রামে ৬শ ফিট দৈর্ঘ্য ও ৮ মিটার প্রস্থ ইটের সলিং রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু করে‌ছি। পৌরসভার কর্মকর্তারা গি‌য়ে রাস্তা মেপে আমাকে যেভাবে বুঝে দিয়েছেন আমি সেভাবেই কাজ করে যা‌চ্ছিলাম। অর্ধেক পরিমাণ কাজ শেষ করার প‌রে জেলা আওয়ামী লী‌গের সাধারন সম্পাদক বাবু অনল কুমার দে এর স্ত্রী সুজাতা রানী দের পরিবার রাস্তার মাঝখান দিয়ে বাঁশের বেড়া নির্মাণ ও পিলার গেড়ে রাস্তা নির্মাণে বাঁধা প্রদান করে‌ছে। আমি বিষয়টি পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। ওই রাস্তা দি‌য়ে এলাকার অ‌নেক প‌রিবার সু‌বিধা ভোগ কর‌বে।

জানতে চাইলে সুজাতা রানী দে এবং তার বোন সুচিত্রা রানী দে বলেন, আমরা রাস্তা নির্মাণের জন্য দুই ফিট জায়গা দিয়েছি। এর বেশি দেওয়া সম্ভব না। তাই আমাদের জায়গায় আমরা বাঁশের বেড়া দিয়েছি।

এ‌ বিষ‌য়ে জেলা আওয়ামী লী‌গের সাধারণ সম্পাদক বাবু অনল কুমার দে’র সা‌থে যোগা‌যোগ করা হ‌লে তি‌নি এই নি‌য়ে কোনো মন্তব্য কর‌তে রা‌জি হয়‌নি।

পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট পারভেজ রহমান জন বলেন, রাস্তার ব্যাপারে সমাধা‌নের চেষ্টা চল‌ছে। আশা ক‌রি সমাধান হ‌য়ে যা‌বে।