সৌদি আরবে এক সপ্তাহে বাংলাদেশিসহ ১৫ হাজার অবৈধ প্রবাসী গ্রেফতার

saudi atok n2
❏ রবিবার, ডিসেম্বর ২৬, ২০২১ প্রবাসের কথা

আব্দুল্লাহ আল মামুন, সৌদিআরব প্রতিনিধি: সৌদিআরবে গত এক সপ্তাহের মধ্যে বিভিন্ন অঞ্চলে আবাসিক এবং শ্রম আইন এবং সীমান্ত নিরাপত্তা বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন দেশের প্রায় ১৫,০৭৬ জন নাগরিকদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গত ১৬ থেকে ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত নিরাপত্তা বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট এবং পাসপোর্টের জেনারেল ডিরেক্টরেট (জাওয়াজাত) দ্বারা পরিচালিত যৌথ মাঠ অভিযানের সময় এদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সৌদি গণমাধ্যম আরব নিউজের প্রতিবেদনের বরাত জানা যায়, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ৭,৭৭৭ জন আবাসিক আইন লঙ্ঘনকারী, ৫,৩৭৫ জন সীমান্ত নিরাপত্তা বিধি লঙ্ঘনকারী এবং ১,৯২৪ জনেরও বেশি শ্রম আইন লঙ্ঘনকারী অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

সৌদিআরবের সীমান্ত অতিক্রম করার চেষ্টা করার সময় মোট ২০৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, যাদের মধ্যে ৬৪ শতাংশ ইয়েমেনি নাগরিক, ২৮ শতাংশ ইথিওপিয়ান নাগরিক ৮ শতাংশ অন্যান্য জাতীয়তার নাগরিক এবং ৩৪ জনকে সৌদির সীমান্ত অতিক্রম করে পালানোর চেষ্টা করার জন্য গ্রেপ্তার করা হয়। নিরাপত্তা বাহিনী লঙ্ঘনকারীদের পরিবহন এবং তাদের আশ্রয় দেওয়ার সাথে জড়িত ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

আইন লঙ্ঘনকারীদের মধ্যে বর্তমানে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার অধীন রয়েছে তাদের মধ্যে মোট ৯২,৩০৪ জন, এদের মধ্যে ৮৩,১২৫ জনেরও বেশি পুরুষ এবং ৯,১৭৯ জন মহিলা রয়েছে। ৮১,৬৭০ জন লঙ্ঘনকারীদের মামলা তাদের নিজ দেশে নির্বাসনের জন্য ভ্রমণ নথি পাওয়ার জন্য তাদের কূটনৈতিক মিশনে রেফার করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সতর্ক করেছে যে যে কেউ সীমান্ত সুরক্ষা বিধি লঙ্ঘন করে কাউকে সৌদি প্রবেশের সুবিধার্থে ধরা পড়ে বা তাকে পরিবহন বা আশ্রয় বা যে কোনও উপায়ে কোনও সহায়তা বা পরিষেবা সরবরাহ করে তাকে সর্বোচ্চ ১৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হবে। অথবা ১ মিলিয়ন সৌদি রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা করা হবে এবং যাতায়াত পরিবহন, আশ্রয়ের জন্য ব্যবহৃত বাসস্থান বাজেয়াপ্ত করা হবে, পাশাপাশি স্থানীয় মিডিয়াতে তাদের নাম প্রকাশ করা হবে।