• আজ সোমবার, ৩ মাঘ, ১৪২৮ ৷ ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ ৷

মেট্রোরেল, ফ্লাইওভার কি আমরা চিবিয়ে খাব: রিজভী

rijvi
❏ রবিবার, জানুয়ারী ৯, ২০২২ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ২০২২ সালকে অবকাঠামোগত উন্নয়নের বছর উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেসব প্রকল্প চলতি বছর উদ্বোধনের কথা বলেছেন, সেগুলোতে দেশবাসীর পেট ভরবে কি না, তা জানতে চেয়েছেন বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী।

গত শুক্রবার বর্তমান সরকারের তিন বছর পূর্তিতে জাতির ‍উদ্দেশে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের প্রতিক্রিয়ায় রোববার নয়াপল্টনে এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব।

রিজভী বলেন, গত শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ২০২২ সাল হবে উন্নয়নের মাইলফলক। আমি বলতে চাই- এই উন্নয়নের ধারায় জনগণ এবং দেশ আরও কত প্রতারিত হবে? আরও কতো নিঃস্ব হবে? আপনার মেট্রোরেল কি আমরা চিবিয়ে চিবিয়ে খাব? আপনার ফ্লাইওভার কি আমরা চিবিয়ে চিবিয়ে খাব? আপনি ২০২২ সালকে বলেছেন, উন্নয়নের মাইলফলক। আর গণতন্ত্র ও কথা বলার স্বাধীনতার কী হবে?

তিনি বলেন, আর আপনি (প্রধানমন্ত্রী) কি জানেন, আজকে যে সন্তানটি জন্মলাভ করছে, তার পেছনে ৯৮ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে সে জন্মলাভ করছে! আপনি উন্নয়নের কথা বলেন। ২০২২ সাল বলেন উন্নয়নের মাইলফলক হবে। এটা তো ঋণের মাইলফলক। এটা তো গুমের মাইলফলক হবে। এটা তো বন্দুকযুদ্ধের মাইলফলক হবে। এটা অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের গুমের শিকারের মাইলফলক হবে। আমি আগেও বলেছি, যদি লজ্জা-শরম না থাকে তাহলে তাদেরকে বলেও কোনো লাভ নাই।

দেশে বর্তমানে ‘ভয়ংকর শ্বাসরুদ্ধকর’ পরিস্থিতি বিরাজ করছে মন্তব্য করে রিজভী বলেন, “আমরা এমন একটি সমাজে বাস করি- যেখানে কথা বলা যায় না, বাক স্বাধীনতা নেই। ডানে-বামে সবসময় তাকাতে হয়, কেউ আমাকে অনুসরণ করছে কি না বা আমি কারো দ্বারা অনুসৃত হচ্ছি কি না।”

বর্তমান সরকারের আমলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘সত্য কথা বলার জন্য’ অ্যাক্টিভিস্টদের ওপর দমন-পীড়নের কঠোর সমালোচনা করেন রিজভী।

নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় জাতীয়তাবাদী অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের উদ্যোগে প্রয়াত অললাইন অ্যাক্টিভিস্ট এম এম ওবায়দুর রহমান, কামারুল হাসান শাহীন, তনিমা সোমা, শান্ত ইসলাম জুম্মনসহ অন্যদের স্মরণে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল হয়।

কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বিএনপির সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, ওয়াহিদুজ্জামান অ্যাপেলো, আবদুস সালাম আজাদ, আমিরুজ্জামান শিমুল, হায়দার আলী লেলিন, কাজী রফিক, ওবায়দুর রহমান টিপু বক্তৃতা করেন।