🕓 সংবাদ শিরোনাম

লালমনিরহাটে নকল বিল ভাউচারে স্কুলের টাকা আত্মসাৎ * সাতক্ষীরায় দুধের পরিমাণ বাড়িয়ে বিক্রি, ব্যবসায়ীকে দুই লাখ টাকা জরিমানা * রবীন্দ্রকাছারি বাড়িই হবে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্কৃতি চর্চার ক্ষেত্র: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী * বিএনপি বাড়াবাড়ি করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে: তথ্যমন্ত্রী * ফরিদপুরে হাজিরা দিতে এসে আদালত প্রাঙ্গণে আসামীর মৃত্যু * ধান উৎপাদন বাড়াতে নানামুখী কার্যক্রম গ্রহণ করেছে সরকার * লাখাইয়ে বীজ ও সার বিতরণের উদ্বোধন * ২৬ শর্তে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি * ১০ টাকার টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী * রসিক নির্বাচনে বিএনপির পর এবার সরে দাঁড়াল জামায়াত *

  • আজ মঙ্গলবার, ১৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ২৯ নভেম্বর, ২০২২ ৷

ভ্রমণ পিপাসুদের মাঝে সচেতনতা বাড়াতে কক্সবাজারে ‘বিচ ক্লিনিং প্রোগ্রাম’

cox n34
❏ মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১১, ২০২২ চট্টগ্রাম

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে ‘টেল প্লাস্টিকস বিচ ক্লিনিং’ কর্মসূচি পালন করেছে দেশের শীর্ষ স্থানীয় শিল্পগ্রুপ আরএফএল। মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সকালে এর উদ্বোধন করেন আরএফএল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আর এন পাল।

তিনি বলেন, গৃহস্থালী প্রয়োজনীয় পণ্যের সহজলভ্যতা দিতে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগ্রুপ আরএফএল নানা ধরণের প্লাস্টিক সামগ্রি উৎপাদন করে। অনেকে প্লাস্টিক পণ্যের সুষ্ঠু ব্যবহার জানেন না। ফলে যত্রতত্র ফেলা হয় ওয়েস্টিজ। এটি পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর। মানুষের মাঝে এসব বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করা আরএফএল’র সামাজিক দায়বদ্ধতায় পড়ে। এ দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে আমরা বছর জুড়ে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করি। এরই অংশ হিসেবে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে টেল প্লাস্টিকসের সৌজন্যে ‘বিচ ক্লিনিং’ কর্মসূচী পালন করা।’

এমডি আর এন পালের মতে, এ কমসূচীর্র উদ্দেশ্য হলো- পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা ও মানুষের মাঝে সচেতনতা তৈরি করা। আমাদের প্রচারণা দেখে যদি সমুদ্র সৈকতে ময়লা আবর্জনা ফেলা কমে, তাতেই এ ‘বিচ ক্লিনিং’ কমসূচির সফলতা। আগামীতে চট্টগ্রামের পতেঙ্গা ও পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতসহ দেশের বিভিন্ন নদীর বন্দরে এ ধরনের কর্মসূচী পালন করার ইচ্ছে রয়েছে আমদের।

‘সমুদ্র রাখতে পরিস্কার, দরকার শুধু ইচ্ছার’- এ শ্লোগানে ঢাকা রাউন্ড টেবিল ও কক্সবাজার টুরিস্ট পুলিশের সহযোগিতায় সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে আয়োজিত ক্লিনিং প্রোগ্রামে আরএফএল গ্রুপের প্রায় পাঁচ শতাধিক কর্মকর্তা, স্থানীয় পরিবেশকর্মী ও পর্যটকরা অংশগ্রহণ করেন। অংশগ্রহণকারীরা কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্ট থেকে কলাতলী পয়েন্ট পর্যন্ত সৈকতে পড়ে থাকা আবর্জনা পরিস্কার করেন।

ক্লিনিংয়ে অংশ নেয়া উই ক্যান কক্সবাজার প্লাটফর্মের সমন্বয়ক ওমর ফারুক জয় বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের চারণভূমিগুলোকে পরিচ্ছন্ন রাখতে সচেতনতা সৃষ্টির বিকল্প নেই। আমরা আমাদের প্রাকৃতিক সম্পদগুলোর গুরুত্ব নিয়ে সচেতন নয়। বিশ্বের দীর্ঘতম সৈকতের পরিচ্ছন্নতা আনায়নে বহুজাতিক পণ্য উৎপাদন কোম্পানি আরএফএল’র ‘বিচ ক্লিনিং প্রোগ্রাম’ প্রশংসার দাবি রাখে।

ক্লিনিং প্রোগ্রামে অতিথি হয়ে আসা ট্যুরিস্ট পুলিশের এএসপি মিজানুর রহমান বলেন, আমরা সকলেই কক্সবাজারসহ বিভিন্ন সমুদ্রসৈকতে ঘুরতে যাই। কিন্তু আমাদের ফেলে আসা ময়লা-আবর্জনা সমুদ্র সৈকতগুলোর সৌন্দর্য যেমন নষ্ট করছে তেমনি আমাদের পরিবেশেরও ক্ষতি করছে। ‘বিচ ক্লিনিং প্রোগ্রাম’ ভ্রমণ পিপাসুদের মাঝে সচেতনতা বাড়াতে ভূমিকা রাখে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের পর্যটন স্পট গুলোকে পরিচ্ছন্ন রাখতে আমাদের আরো সচেতন হওয়া দরকার।

‘বিচ ক্লিনিং প্রোগ্রাম’-এ টেল প্লাস্টিকসের নির্বাহী পরিচালক কামরুল হাসান ও হেড অফ মার্কেটিং ফাহিম হোসেন, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের জনসংযোগ বিভাগের ডেপুটি ম্যানেজার হুমায়ুন আহমেদ বিলাসসহ আরএফএল গ্রুপের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।