🕓 সংবাদ শিরোনাম

জম্মু-কাশ্মীরে টানেল ধস; দীর্ঘ ৩৬ ঘণ্টা উদ্ধার তৎপরতায় মিললো ১০ মরদেহজমি দখলে বাধা দেওয়ায় সন্ত্রাসী হামলা, বৃদ্ধসহ আহত-২ভারতে যৌন নির্যাতনের শিকার আলোচিত সেই তরুণীকে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তরভারতের বেঙ্গালুরুতে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণের দায়ে ১১ জনের কারাদণ্ড‘সংকট নিরসনে শ্রীলঙ্কা ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মডেল’ অনুসরন করতে পারে’স্কুল ফাঁকি দেয়া শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শাস্তির বিধান রাখা উচিত: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীটানা ৩১ দিন করোনায় মৃত্যুহীন দেশ, গত ২৪ ঘন্টায় শনাক্ত ১৬দেশের চিকিৎসা বিজ্ঞানে নতুন আবিস্কার: হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের ওষুধ ‘ন্যাসভ্যাক’রাতগভীরে ঘুম থেকে উঠে গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যাবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শাবিপ্রবি পেল সর্বোচ্চ বরাদ্দ

  • আজ রবিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২২ মে, ২০২২ ৷

কিয়েভসহ ৪ শহরে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা রাশিয়ার

সেনা
❏ সোমবার, মার্চ ৭, ২০২২ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বেসামরিক নাগরিকদের সরে যাওয়ার জন্য ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ, খারকিভ, মারিউপুল এবং সুমিতে সাময়িক সময়ের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে রাশিয়া। মস্কোর স্থানীয় সময় সকাল ১০টা থেকে এসব শহরে মানবিক করিডোর চালু হচ্ছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাতে এমন তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম ইন্টারফেক্স।

রুশ বাহিনীর হামলায় মারিউপুল এবং খারকিভে মানবিক পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণা করছে। প্রতিনিয়ত গোলাবর্ষণের ফলে ধসে পড়ছে একের পর এক আবাসিক বাড়ি-ঘর। এতে প্রাণহানির সংখ্যা বাড়ছে। কিয়েভের পরিস্থিতিও একই রকম।

শহরগুলোকে অনেকটা অবরুদ্ধ করে ফেলেছে রাশিয়ান বাহিনী। পরিস্থিতি বিবেচনায় সোমবার (৭ মার্চ) থেকে শহরগুলোতে মানবিক করিডোর খোলার ঘোষণা বিবৃতিতে জানিয়েছে রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী।

এর আগে যুদ্ধের অষ্টম দিন ৩ মার্চ যুদ্ধবিরতির পথ খুঁজতে দ্বিতীয় দফায় ‘শান্তি আলোচনায়’ বসে ইউক্রেন ও রুশ প্রতিনিধিদল। ওই আলোচনায় কিয়েভ আশানুরূপ ফল পায়নি। তবে ইউক্রেনে যুদ্ধবিধ্বস্ত এলাকা থেকে বেসামরিক লোকদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য বা তাদের কাছে সহায়তা পাঠাতে ‘মানবিক করিডর’ দিতে সম্মত হয় রাশিয়া।

ওই সিদ্ধান্তের পরই ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে সাময়িক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করছে রুশ সেনারা। তবে ইউক্রেন অভিযোগ তুলেছে, মানবিক করিডরের অনুমতি দিয়েও রুশ সেনারা এর আগে একাধিক জায়গায় গোলাবর্ষণ করেছে। বেসামরিক লোকদের সেখান সরিয়ে নিতে বাঁধা দিয়েছে। তবে রাশিয়া সেই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।