🕓 সংবাদ শিরোনাম

মকবুলের মরদেহ দেখতে হাসপাতালে মির্জা ফখরুল, স্ত্রী সন্তানকে আর্থিক সহায়তা * রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না, আমরাও করব না: ওবায়দুল কাদের * নয়াপল্টন থেকে মির্জা ফখরুলকে ফিরিয়ে দিলো পুলিশ * বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে আরও ১,২৫০ কোটি টাকা ঋণ নিলো ২ ইসলামী ব্যাংক * দুই মামলায় হাজিরা দিলেন মির্জা ফখরুল-আব্বাস * থমথমে নয়াপল্টন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় অবরুদ্ধ * ফুলবাড়ীতে অপহরণের ২১ দিনেও উদ্ধার হয়নি নরসুন্দর বাবলু ! * বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের দেশে কোন মানুষ ঠিকানাহীন থাকবে না : প্রধানমন্ত্রী * ভারতকে টানা ২ সিরিজ হারাল বাংলাদেশ * ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আদালতে ভুল প্রতিবেদন দাখিলের অভিযোগ *

  • আজ বৃহস্পতিবার, ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ ৷ ৮ ডিসেম্বর, ২০২২ ৷

বেলকুচিতে প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত, ভাঙচুর ও প্রাণনাশের হুমকি

হামলা
❏ মঙ্গলবার, মার্চ ৮, ২০২২ দেশের খবর, রাজশাহী

উজ্জ্বল অধিকারী, বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে আলহাজ্ব সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদ গঠনের লক্ষ্যে নিয়ম বহির্ভূত মনোনয়ন পত্র না দেয়াকে কেন্দ্র করে প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত ভাঙচুর ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সোমবার (০৭ মার্চ) দুপুরে বেলকুচি উপজেলার আলহাজ্ব সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদ গঠনের লক্ষ্যে তফসিল ঘোষণা অনুযায়ী গত ৩ মার্চ থেকে ০৬ মার্চ পর্যন্ত মনোনয়ন পত্র উত্তোলন ও জমা দানের শেষ সময় হওয়ায় প্রধান শিক্ষক নিয়ম বহির্ভূত মনোনয়ন পত্র না দেয়ায় এ ঘটনা ঘটে। এসময় ঐ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সংঘবদ্ধ হয়ে দাওয়া করলে তারা পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে আলহাজ সিদ্দিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মেহেদী মাসুদ জানান, পরিচালনা পরিষদ গঠনের লক্ষ্যে তফসিল ঘোষণা অনুযায়ী গত ৩ মার্চ থেকে ৬ মার্চ পর্যন্ত মনোনয়ন পত্র উত্তোলন ও জমা দানের শেষ সময়। কিন্ত ৭ মার্চ তারিখে আমার নিকট গাড়ামাী গ্রামের সৌরভ ও আব্দুল মতিনসহ ১০/১২ জন এসে আমার নিকট মনোনয়ন পত্র চায়। নিয়ম বহির্ভূত হওয়ায় আমি দিতে অস্বীকার করায় আমাকে লাঞ্চিত করে। এসময় টেলিফোন, চেয়ারসহ আসবাব পত্র ভাঙচুর করে এবং আমাকে দেখে নেযার হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে সৌরভের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ ব্যাপারে বেলকুচি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।