🕓 সংবাদ শিরোনাম

জমি দখলে বাধা দেওয়ায় সন্ত্রাসী হামলা, বৃদ্ধসহ আহত-২ভারতের বেঙ্গালুরুতে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণের দায়ে ১১ জনের কারাদণ্ড‘সংকট নিরসনে শ্রীলঙ্কা ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মডেল’ অনুসরন করতে পারে’স্কুল ফাঁকি দেয়া শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শাস্তির বিধান রাখা উচিত: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীটানা ৩১ দিন করোনায় মৃত্যুহীন দেশ, গত ২৪ ঘন্টায় শনাক্ত ১৬দেশের চিকিৎসা বিজ্ঞানে নতুন আবিস্কার: হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের ওষুধ ‘ন্যাসভ্যাক’রাতগভীরে ঘুম থেকে উঠে গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যাবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শাবিপ্রবি পেল সর্বোচ্চ বরাদ্দবঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভা চ্যাম্পিয়াননির্বাচনে ভোটারদের না আসার প্রবণতা রয়েছে: নির্বাচন কমিশনার

  • আজ রবিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২২ মে, ২০২২ ৷

দেশে পৌঁছেছে ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের মরদেহ


❏ সোমবার, মার্চ ১৪, ২০২২ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা: ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে বাংলাদেশি জাহাজ ‘বাংলার সমৃদ্ধি’তে রকেট হামলায় নিহত থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের মরদেহ দেশে পৌঁছেছে।

টার্কিশ এয়ারলাইন্সের একটি যাত্রীবাহী ফ্লাইটে সোমবার দুপুর সোয়া ১২টায় তার মরদেহ ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়।

এর আগে রবিবার মরদেহ আসার কথা থাকলেও ইস্তাম্বুলে ভারী তুষারপাতের কারণে ঢাকাগামী ফ্লাইটটি বাতিল হয়ে যায়।

রবিবার রোমানিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. দাউদ আলী জানিয়েছিলেন, ইস্তাম্বুলে ভারী তুষারপাত হওয়ায় সেখান থেকে ঢাকাগামী ফ্লাইটটি বাতিল করা হয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে সোমবার ১২টা ১৫ মিনিটে অন্য একটি ফ্লাইট হাদিসুরের মরদেহ নিয়ে ঢাকায় পৌঁছাবে।

গত শুক্রবার হাদিসুরের মরদেহ ইউক্রেন থেকে মালদোভায় পৌঁছায়। সেখান থেকে মরদেহ শনিবার সকালে রোমানিয়ায় পৌঁছায়। পরে রোমানিয়া স্থানীয় সময় রাত পৌনে ১০টায় বুখারেস্ট থেকে নাবিক হাদিসুরের মরদেহ টার্কিশ এয়ারলাইন্সের একটি কার্গো ফ্লাইটে ঢাকার উদ্দেশে রওনা করে। ফ্লাইটটি ইস্তাম্বুলে পৌঁছানোর পর ভারী তুষারপাতে বাতিল হয়।

বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন (বিএসসি) মালিকানাধীন বাংলার সমৃদ্ধি জাহাজটি ভারতের মুম্বাই থেকে তুরস্ক হয়ে গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে পৌঁছে। সেখান থেকে সিমেন্ট ক্লে নিয়ে ২৪ ফেব্রুয়ারি ইতালির রেভেনা বন্দরের উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা ছিল ডেনিশ কোম্পানি ডেল্টা করপোরেশনের অধীনে ভাড়ায় চলা জাহাজটির।

এর মধ্যে ইউক্রেনে রাশিয়া হামলা শুরু করলে অলভিয়া সমুদ্রবন্দরে ২৯ জন নাবিক নিয়ে আটকে পড়ে জাহাজ। এ অবস্থার মধ্যে গত ২ মার্চ জাহাজটিতে রকেট হামলা হয়। এতে জাহাজের থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমান মারা যান। ৩ মার্চ বেঁচে যাওয়া ২৮ নাবিককে উদ্ধার করে নিরাপদ বাংকারে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে সীমান্ত পেরিয়ে রোমানিয়া যান নাবিকরা।

পরে গত বুধবার দুপুর ১২টার দিকে টার্কিশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ২৮ নাবিক ফিরে আসেন।

হাদিসুরের গ্রামের বাড়ি বরগুনার বেতাগীর হোসনাবাদে।