🕓 সংবাদ শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীকে সাধুবাদ জানিয়েছে টিআইবিচাকরি গেল প্রতিমন্ত্রীর মেয়ের, ফেরত দিতে হবে বেতনওস্বর্ণ গায়েব করে চাকরি হারালেন এসপিখালেদা জিয়া ও বিএনপির জন্য পদ্মা সেতুর নিচে নৌকা রাখা হবে: শাজাহান খানশেখ হাসিনার চেয়ে বেশি উন্নয়ন করাও সম্ভব নয়: খাদ্যমন্ত্রীচট্টগ্রামে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশসহ তিনজন নিহততরুনীদের প্রেমের ফাঁদে ফেলে সর্বস্ব লুটে নিতেন পুরুষ ছদ্মবেশী এই তরুণী!অচিরেই বিএনপিসহ সকল রাজনৈতিক দলকে আলোচনায় বসার আহবান জানানো হবে: সিইসিসঠিক তথ্য পেতে আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে কাজ করবে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরটিকটক ভিডিও বানাতে নদীতে ঝাঁপ দেবার ঘণ্টা দেড়েক বাদে উদ্ধার হল কিশোরের মৃতদেহ

  • আজ শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২১ মে, ২০২২ ৷

রমজানে বেশি দাম পেতে কেরানীগঞ্জে পুদিনা’র ব্যাপক চাষাবাদ

Keranigonj news
❏ রবিবার, এপ্রিল ৩, ২০২২ ঢাকা

মাসুম পারভেজ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,  সময়ের কণ্ঠস্বর : বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রীতে সুগন্ধ ছড়াতে পুদিনা পাতা ব্যবহার করা হয়। এটির রয়েছে নানা ওষুধি গুণ। তবে রমজান মাসে ইফতারিতে অনেকের পুদিনা পাতা ছাড়া যেন চলেই না, তাই এর চাহিদা বেড়ে যায় কয়েক গুণ। এই পাতার ব্যাপক চাহিদার পাশাপাশি দামও মেলে আশানুরূপ। তাই ঢাকার কেরানীগঞ্জে অনেক কৃষক এখন পুদিনা পাতার আবাদে ঝুঁকেছেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার হযরতপুর, রোহিতপুর ও কোন্ডা ইউনিয়নের মোলস্নাবাজার চর বাক্তারচর, জাজিরা এলাকায় বিশাল এলাকাজুড়ে চাষ হচ্ছে পুদিনা পাতা। প্রতি বছর এখান থেকে পুদিনা ক্রয় করে দেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় নিয়ে যায় আগত পাইকাররা।রমজানে কয়েক লাখ টাকার পুদিনা বিক্রি করতে পারবেন বলে আশা করছেন এখানকার কৃষকরা।

এই পুদিনাপাতার চাষ পুরো বছর জুড়ে করা যায়, তবে রমজানের সময় এর চাহিদা কয়েকগুণ বেড়ে যায় বলে জানান কৃষক দুলাল হোসেন। তিনি জানান, ২০ বছর ধরে পুদিনাপাতার চাষে জড়িত তিনি। চলতি মৌসুমে প্রায় ৮ বিঘা জমিতে পুদিনা পাতার চাষ করছেন।

তিনি বলেন, এই চাষের জন্য বর্তমানে যে আবহাওয়া রয়েছে এটা মোটামুটি ভালো। বেশি বৃষ্টি আবার কম বৃষ্টি কোনোটাই এই চাষের জন্য উপকারি না। সবচেয়ে ক্ষতি হয় পানি কম থাকলে। বেশি বৃষ্টিতেও তেমন ক্ষতি হয় না। পরিবেশ অনুকূলে থাকলে এ বছর রমজানে পুদিনা বাজারজাত করে ভালো টাকা আয় করতে পারব বলে আশা করছি।

তিনি জানান, পুদিনার চাষে শ্রমিক ও বিভিন্ন বাবদ তার খরচ পড়েছে প্রায় ৮০ হাজার টাকা। বাজারদর ভালো হলে তিনি প্রায় ৪/৫ লাখ টাকার পুদিনা বিক্রি করতে পারবেন বলে আশা করছেন।

আরেক কৃষক রহমত আলী বলেন, আমি প্রায় ৫ বিঘা জমিতে পুদিনা পাতার চাষ করেছি। চাষও ভালো হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় লাভবান হব সবাই। আর যেহেতু রমজান, তাই আমাদের লাভবান হওয়ার সব থেকে ভালো সময় এইটা। কারণ রমজান মাসে পুদিনাপাতার চাহিদা ব্যাপক হারে বেড়ে যায়।

তিনি বলেন, এলাকার অনেকের আগ্রহ থাকলেও প্রয়োজনীয় পরামর্শ না পাওয়ায় এই চাষ করছেন না। তবে সরকারিভাবে কৃষকদের পৃষ্ঠপোষকতা করা হয়, তাহলে ভবিষ্যতে এই পাতার চাষ অনেক বাড়বে বলে জানান কৃষক রহমত আলী।

এদিকে পুদিনা পাতা চাষে কৃষকরা আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার পাশাপাশি প্রচুর কর্মসংস্থানেরও সুযোগ হচ্ছে।

পুদিনা ক্ষেতে কাজ করা শ্রমিক হোসেন মিয়া বলেন, আমরা প্রায় সব কৃষি কাজই করে থাকি। এতদিন আলু রোপণ ও উঠানোর কাজ করেছি। এখন আবার সেই জমিনেই পুদিনা চাষ করছি। চুক্তি অনুযায়ী দিন শেষে ইনকাম ৬শ’ থেকে ৭শ’ টাকা। খাবার দাবার নিজেদের তহবিল থেকেই হয়।

রন্ধনশিল্পী কল্পনা রহমান ও রুপচাঁদা সুপারশেফ ‘১৮ রানার আপ কানিজ ফাতেমা জানান, পুদিনাপাতার সবচেয়ে বেশি চাহিদা হলো বিয়ে বাড়িতে বোরহানি বানানোর কাজে। পাশাপাশি চায়নিজ রেস্টুরেন্ট, পাঁচতারা হোটেলেও পুদিনার ব্যবহার বেড়েছে আগের তুলনায় অনেক। বিশেষ করে রমজান মাসে বড়া, চাটনি, সালাদ, বোরহানি বানানোর কাজে ব্যাপক হারে পুদিনাপাতা ব্যবহার হয়। এছাড়া টুথপেস্ট, তামাক, চা, শরবত, মিন্ট চকলেটসহ বিভিন্ন প্রসাধন সামগ্রীতে পুদিনার ব্যবহার রয়েছে। তাই পুদিনা চাষও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এ বিষয়ে কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মশিউর রহমান বলেন, পুদিনা পাতায় অনেক উপকারিতা ও অন্যান্য উপাদান রয়েছে। এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট থাকে, যা ক্যানসার, হৃদরোগসহ বিভিন্ন রোগ থেকে মানুষকে বাঁচাতে পারে। এ পাতা ব্যবহারে গলার ক্ষত প্রতিরোধ করে, দাঁত ও মাঢ়ির ক্ষত সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. শহিদুল আমিন বলেন, পুদিনা চাষাবাদ অন্যান্য শাক-সবজির চেয়ে কিছুটা শ্রমসাধ্য কাজ। নিবিড় পরিচর্যা করে এর ফলন নিশ্চিত করতে হয়। তবুও উপজেলার কয়েকটি এলাকায় কৃষক পুদিনা পাতার চাষ করছেন। তারা নিজেদের জীবিকা নির্বাহের জন্য চাষ করলেও ঔষধি গুণাগুণ সমৃদ্ধ পুদিনার উৎপাদনে বেশ উপকৃত হচ্ছে মানুষ।