🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২১ মে, ২০২২ ৷

টিপ পরা সহকর্মীদের ‘পাগল’ বললেন অভিনেতা সিদ্দিক

সিদ্দিক
❏ বুধবার, এপ্রিল ৬, ২০২২ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক: টিপ পরায় তেজগাঁও কলেজের প্রভাষক ড. লতা সমাদ্দারকে পুলিশ সদস্যের লাঞ্ছনা ও অশালীন আচরণের প্রতিবাদে সরব অন্তর্জালবাসীর অনেকেই। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করছেন নিজেদের টিপ পরা ছবি।

সেই তালিকায় আছে শোবিজ তারকারাও। প্রতিবাদে পুরুষ শিল্পীরাও কপালে সেঁটে দিয়েছেন আসল অথবা প্রতীকী টিপ। এই তালিকায় আছেন জনপ্রিয় অভিনেতা সাজু খাদেম, প্রাণ রায়, আনিসুর রহমান মিলন, মনোজ প্রামাণিক, সাইমন সাদিকসহ অনেকেই।

তবে অভিনেতাদের এমন প্রতিবাদের সমালোচনা করেছেন আরেক অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিক। নিজের ফেসবুকে সাজু খাদেম, আনিসুর রহমান মিলন, প্রাণ রায় ও মনোজ প্রামাণিকসহ অনেকের টিপ পরা ছবি পোস্ট করে সিদ্দিক প্রশ্ন তুলেন, ‘আমরা কি দিন দিন পাগল হয়ে যাচ্ছি?’

এরপর এই অভিনেতা আরও লিখেছেন, ‘আল্লাহপাক সবাইকে এই সমস্ত পাগলের হাত থেকে হেফাজত করুক। মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষা করুন। আল্লাহ সবাইকে ক্ষমা করুক। আমিন।’

বিষয়টি নিয়ে যোগাযোগ করা হলে সিদ্দিক বলেন, ‘আমার মনুষ্যত্ব তো কারও কাছে বিক্রি করবো না! মানুষ বেঁচে থাকে তার ব্যক্তিত্ব ও মনুষ্যত্বের জন্য। শিল্পীরা যে এমন কাজ করতে পারেন তা আমি ভাবতেও পারি না। এখন রমজান মাস। পবিত্রতা রক্ষা করতে হবে। মুসলিম দেশে বসবাস করি। এমনিতেই বাংলাদেশের মানুষের ধারণা, মিডিয়ার লোকগুলো ইসলামবিরোধী, খারাপ। এরমধ্যে এটা করলো কিছু পাগল শিল্পী; আমি তাদের পাগলই বলবো! দেশে হাজার হাজার ঘটনা ঘটে, যেগুলো মাত্রাতিরিক্ত। সেগুলো নিয়ে কিছু নাই অথচ একজন সার্জেন্ট (কনস্টেবল) কী বলেছে, সেটা নিয়ে এমন সময় এমন কিছু করলো! শিল্পী তো ধর্মের উপরে না। মানব জাতিও ধর্মের উপরে না। শিল্পীদের মন এত ছোট হওয়া যাবে না।’

প্রসঙ্গত, শনিবার (২ এপ্রিল) রাজধানীর গ্রিন রোডের বাসা থেকে কলেজে যাওয়ার পথে উত্ত্যক্তের শিকার হন তেজগাঁও কলেজের প্রভাষক ড. লতা সমাদ্দার। তিনি অভিযোগ করেন, ‘‘হেঁটে কলেজের দিকে যাওয়ার সময় হুট করে পাশ থেকে মধ্যবয়সী, লম্বা দাড়িওয়ালা একজন- ‘টিপ পরছোস কেন’ বলেই বাজে গালি দেন তাকে। ওই মধ্যবয়সী ব্যক্তির গায়ে পুলিশের পোশাক।’’

ঘটনার প্রতিবাদ জানালে একপর্যায়ে তার পায়ের ওপর দিয়েই বাইক চালিয়ে চলে যায় সেই ব্যক্তি। পরবর্তী সময়ে এ ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন লতা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এর প্রতিবাদ জানিয়ে বিচার দাবি করছেন অগুনতি মানুষ। পরে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য নাজমুল তারেককে শনাক্ত করে তাকে সাময়িক বহিষ্কার করে প্রশাসন।