🕓 সংবাদ শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীকে সাধুবাদ জানিয়েছে টিআইবিচাকরি গেল প্রতিমন্ত্রীর মেয়ের, ফেরত দিতে হবে বেতনওস্বর্ণ গায়েব করে চাকরি হারালেন এসপিখালেদা জিয়া ও বিএনপির জন্য পদ্মা সেতুর নিচে নৌকা রাখা হবে: শাজাহান খানশেখ হাসিনার চেয়ে বেশি উন্নয়ন করাও সম্ভব নয়: খাদ্যমন্ত্রীচট্টগ্রামে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশসহ তিনজন নিহততরুনীদের প্রেমের ফাঁদে ফেলে সর্বস্ব লুটে নিতেন পুরুষ ছদ্মবেশী এই তরুণী!অচিরেই বিএনপিসহ সকল রাজনৈতিক দলকে আলোচনায় বসার আহবান জানানো হবে: সিইসিসঠিক তথ্য পেতে আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে কাজ করবে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরটিকটক ভিডিও বানাতে নদীতে ঝাঁপ দেবার ঘণ্টা দেড়েক বাদে উদ্ধার হল কিশোরের মৃতদেহ

  • আজ শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২১ মে, ২০২২ ৷

রংপুরে দ্বিতীয় দিনেও বন্ধ ঢাকাগামী বাস

বাস
❏ বুধবার, এপ্রিল ৬, ২০২২ দেশের খবর, রংপুর

সাইফুল ইসলাম মুকুল, স্টাফ রির্পোটার: রংপুরে বেতন-ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে দ্বিতীয় দিনেও রংপুর-ঢাকাগামী বাস চলাচল বন্ধ রেখেছেন পরিবহন শ্রমিকরা। গাড়ি বন্ধ রাখার বিষয়ে চলছে শ্রমিক ইউনিয়ন ও পরিবহন মালিক সমিতির পাল্টা পাল্টি অভিযোগ। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রী সাধারণ। তবে এনা, শ্যামলী, সৌখিন, শাহ্ ফতেহ আলী এবং নাবিল পরিবহন গতকাল চললেও আজ তারাও বন্ধ রেখেছে গাড়ি।

মঙ্গলবার সকাল থেকে কোনোরকম ঘোষণা ছাড়াই কর্মবিরতি শুরু করে শ্রমিকরা। ওই দিন দুপুরে ঢাকায় বেতন ভাতার বিষয়ে বৈঠকে বসলেও কোনো রকম সিদ্ধান্ত ছাড়াই সভা শেষ হয়। যার কারণে দ্বিতীয় দিনেও চলছে এ কর্মবিরতি।

এদিকে, কোনরকম পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ ঢাকাগামী বাস চলাচল বন্ধ রাখায় বিপাকে পড়েছেন আগে থেকে টিকিট কেটে রাখা যাত্রীরা।

এস আর পরিবহনের কাউন্টার ম্যানেজার মিঠু জানান, গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকলেও কাউন্টার খোলা আছে। অনেকেই টিকিটের টাকা ফিরত নিচ্ছেন, কেউ কেউ আগাম টিকিট নিচ্ছেন। তবে দুই একদিনের মধ্যেই বাস খুলবে।

এদিকে, কয়েকজন শ্রমিক জানান, অনেক পরিবহন দাবি মেনে নিয়েছে। অনেকে মেনে নেয়নি। তাই গাড়ি বন্ধ রয়েছে। দাবি মেনে নিলে শ্রমিকরা কাজে যোগ দিবেন।

রংপুর মোটর মালিক সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি এ কে চৌধুরী জানান, মঙ্গলবার দুপুরে বসা হয়েছিলো ঢাকায় কিন্তু সিদ্ধান্ত হয়নি। আজ সিদ্ধান্ত হতে পারে। সিদ্ধান্ত হলে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হবে।

রংপুর জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক এম এ মজিদ জানান, পরিবহন মালিকরা কৌশল পরিবহন করে বন্ধ করেছে। আমরা চাই না রমজান মাসে পরিবহনের জন্য মানুষের কষ্ট হোক। এটি মোটর শ্রমিকদের কর্মবিরতি না। এ নিয়ে ঢাকায় পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের বৈঠকে আজ সিদ্ধান্ত হতে পারে।

উল্লেখ্য, বেতন-ভাতা বৃদ্ধি, সড়কে পুলিশি হয়রানি বন্ধ করাসহ পাঁচ দফা দাবিতে মঙ্গলবার থেকে কর্মবিরতি পালন করছেন শ্রমিকরা।