🕓 সংবাদ শিরোনাম

শ্রীলংকার বিপক্ষে ঢাকা টেস্ট থেকে ছিটকে গেলেন নাইমআরিফিন শুভ-তিশাকে শুভকামনা জানালেন নওয়াজুদ্দিনবিদ্যুৎ-গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব আত্মঘাতী: এফবিসিসিআইআড়াইহাজারে মজুরি বৃদ্ধিসহ দ্রব্যমূল্যের দাম নিয়ন্ত্রণের দাবিতে শ্রমিক বিক্ষোভজাপা কোন জোটে যাবে পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত: জিএম কাদেরআগামী মাসেই পদ্মা সেতুতে দাঁড়িয়ে মানুষ পূর্ণিমার চাঁদ দেখবে: কাদেরঝড়ের কবলে পড়ে বালুবাহী বাল্কহেড ডুবিসরকারি কর্মচারীদের ৬০ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির দাবিচট্টগ্রামে পুলিশ ভ্যানে বাসের ধাক্কা, ১৫ পুলিশ সদস্য আহতগাজীপুরে অরক্ষিত ক্রসিংয়ে ট্রেন-পিকআপ ভ্যান সংঘর্ষে নিহত ৩

  • আজ শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২১ মে, ২০২২ ৷

গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার পুলিশের এসআই


❏ শুক্রবার, এপ্রিল ৮, ২০২২ আলোচিত বাংলাদেশ

ঝালকাঠি: ধর্ষণ চেষ্টাকালে গৃহবধুর হাতে জখম হয়ে ‘আত্মগোপনে’ থাকা পুলিশের সেই এসআই আটক হয়েছে। ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় এসআই মো. আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৮ এপ্রিল) দুপুরে ঝালকাঠি জেলা শহরের শেখ রাসেল স্টেডিয়াম এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে, বৃহস্পতিবার রাতে ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন।

গ্রেপ্তার এসআই মো. আলমগীর হোসেন কাঁঠালিয়া উপজেলার তারাবুনিয়া তদন্ত কেন্দ্রে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি ভোলা জেলা সদরে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত সোমবার রাতে (৪ এপ্রিল) এসআই আলমগীর ওই নারীর বাড়িতে যায়। তাঁর স্বামী চট্টগ্রামে চাকরি করেন। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে তাকে ধর্ষণচেষ্টা করে ওই এসআই। নিজের সম্ভ্রম বাঁচাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এসআই আলমগীরকে কুপিয়ে রক্ষা পান তিনি। এ সময় পুলিশ কর্মকর্তার ব্যবহৃত মুঠোফোনটিও রেখে দেন ওই নারী।

ভুক্তভোগী ওই নারী জানান, তাঁকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষণচেষ্টা করলে তিনি পুলিশ কর্মকর্তাকে কুপিয়ে আহত করে ৯৯৯ এ ফোন করেন। খবর পেয়ে কাঁঠালিয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই এসআই আলমগীর ওই বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে তিনি থানায় অভিযোগ করতে চাইলে পুলিশ আগে মেডিক্যালে গিয়ে পরীক্ষা করিয়ে আসতে বলে।

তিনি অভিযোগ করেন, বর্তমানে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। লোক পাঠিয়ে আমাকে চাপ দেওয়া হচ্ছে, আমি মামলা করলে পুলিশও আমার বিরুদ্ধে মামলা করবে। আমি বোনের বাসায় আছি। এ ঘটনার বিচার চাই। আমার কাছ থেকে ধার নেওয়া টাকাও ফেরৎ দেওয়ার দাবি জানাই।

কাঁঠালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুরাদ আলী বলেন, ‘ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় এসআই মো. আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাদীকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।’

আগের সংবাদ 

সম্ভ্রম বাঁচাতে পুলিশের এসআইকে কুপিয়ে জখম করলেন গৃহবধূ!