🕓 সংবাদ শিরোনাম

জমি দখলে বাধা দেওয়ায় সন্ত্রাসী হামলা, বৃদ্ধসহ আহত-২ভারতের বেঙ্গালুরুতে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণের দায়ে ১১ জনের কারাদণ্ড‘সংকট নিরসনে শ্রীলঙ্কা ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মডেল’ অনুসরন করতে পারে’স্কুল ফাঁকি দেয়া শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শাস্তির বিধান রাখা উচিত: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীটানা ৩১ দিন করোনায় মৃত্যুহীন দেশ, গত ২৪ ঘন্টায় শনাক্ত ১৬দেশের চিকিৎসা বিজ্ঞানে নতুন আবিস্কার: হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের ওষুধ ‘ন্যাসভ্যাক’রাতগভীরে ঘুম থেকে উঠে গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যাবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শাবিপ্রবি পেল সর্বোচ্চ বরাদ্দবঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভা চ্যাম্পিয়াননির্বাচনে ভোটারদের না আসার প্রবণতা রয়েছে: নির্বাচন কমিশনার

  • আজ রবিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২২ মে, ২০২২ ৷

কথা দিয়ে কথা রাখেনি ইউক্রেন: পুতিন

190458putin_k
❏ মঙ্গলবার, এপ্রিল ১২, ২০২২ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন মঙ্গলবার জনসম্মুখে যুদ্ধ নিয়ে কথা বলেছেন।

তিনি দাবি করেছেন, তুরস্কে শান্তি আলোচনায় ইউক্রেন রাশিয়ার যেসব দাবির বিষয়ে একমত হয়েছিল ও মেনে নেওয়ার কথা দিয়েছিল সেই কথা এখন তারা ঘুরিয়ে দিয়েছে।

পুতিনের দাবি কথা দিয়ে কথা রাখেনি ইউক্রেন। সূত্র: রয়টার্স

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ এনে ও নিরাপত্তার নিশ্চয়তার অজুহাত দেখিয়ে শান্তি আলোচনা থেকে সরে গেছে ইউক্রেন।

তিনি জানান, ইউক্রেনের মত পরিবর্তনের কারণে তাদের সঙ্গে শান্তি আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার পর্যায়ে আছে।

ইউক্রেনের সঙ্গে শান্তি আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার পর্যায়ে আছে, পুতিনের এমন কথার অর্থ বেশ বড়ই। তিনি এর মাধ্যমে বুঝিয়েছেন ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার চলমান যুদ্ধ সহসাই থামছে না। এই যুদ্ধের ব্যপ্তি আরও দীর্ঘ ও লম্বা হবে।

এদিকে পুতিন তার বক্তব্যে জানান, রাশিয়া ইউক্রেনে মহৎ উদ্দেশ নিয়ে গেছে। তারা দোনবাসের সাধারণ মানুষদের সহায়তা করতে গেছেন। তাদের উদ্দেশ্য মহৎ হওয়ায় এই অভিযানে রাশিয়াই সফলতা পাবে।

এ ব্যাপারে পুতিন বলেন, আমাদের লক্ষ্য হলো যেসব লক্ষ্য ঠিক করেছি সেগুলো অর্জন করা, ক্ষয়ক্ষতি কমানো। আর আমরা শান্তভাবে অভিযান চালিয়ে যাব, যেভাবে আমাদের জেনারেল স্টাফ পরিকল্পনা সাজিয়েছেন সে পরিকল্পনা অনুযায়ী আগাব।

পুতিন আরও দাবি করেন, পশ্চিমাদের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা রাশিয়ার কোনো ক্ষতি করতে পারেনি।