🕓 সংবাদ শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীকে সাধুবাদ জানিয়েছে টিআইবিচাকরি গেল প্রতিমন্ত্রীর মেয়ের, ফেরত দিতে হবে বেতনওস্বর্ণ গায়েব করে চাকরি হারালেন এসপিখালেদা জিয়া ও বিএনপির জন্য পদ্মা সেতুর নিচে নৌকা রাখা হবে: শাজাহান খানশেখ হাসিনার চেয়ে বেশি উন্নয়ন করাও সম্ভব নয়: খাদ্যমন্ত্রীচট্টগ্রামে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশসহ তিনজন নিহততরুনীদের প্রেমের ফাঁদে ফেলে সর্বস্ব লুটে নিতেন পুরুষ ছদ্মবেশী এই তরুণী!অচিরেই বিএনপিসহ সকল রাজনৈতিক দলকে আলোচনায় বসার আহবান জানানো হবে: সিইসিসঠিক তথ্য পেতে আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে কাজ করবে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরটিকটক ভিডিও বানাতে নদীতে ঝাঁপ দেবার ঘণ্টা দেড়েক বাদে উদ্ধার হল কিশোরের মৃতদেহ

  • আজ শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২১ মে, ২০২২ ৷

সম্পত্তি নিয়ে দুই ভাইয়ের বিরোধ: ভাবির লাঠির আঘাতে দেবরের মৃত্যু


❏ শনিবার, এপ্রিল ১৬, ২০২২ ময়মনসিংহ

সময়ের কণ্ঠস্বর,  গফরগাঁও প্রতিনিধি: পৈতৃক সম্পত্তি নিয়ে দুই ভাইয়ের বিরোধ চলছিলো দীর্ঘদিন ধরেই। এবার সেই বিরোধের জেরেই ঝগড়ার এক পর্যায়ে ভাবির লাঠির আঘাতে মাথায় আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হন সাইফুল ইসলাম (৪৫)।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকেলে উপজেলার পাগলা থানাধীন টাঙ্গাব ইউনিয়নের রৌহা গ্রামে।

পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকার হাসপাতালে ভর্তি করান। শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় শনিবার নিহতের স্ত্রী আফরোজা বাদী হয়ে পাগলা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

শনিবার লাশ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

থানা সূত্রে জানা যায়, দুই ভাই বুলবুল ইসলাম ও সাইফুল ইসলাম শারফুলের মধ্যে জমির সীমানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে শুক্রবার বিকেলে দুই ভাইয়ের পরিবারের মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা হয়।

এ সময় বুলবুল ইসলামের স্ত্রী পলি আক্তার পেছন দিক থেকে দেবর সাইফুল ইসলাম শারফুলের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকার হাসপাতালে ভর্তি করান।

শুক্রবার দিবাগত রাত ২টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় তিনি মারা যান।

পাগলা থানার ওসি রাশেদুজ্জামান বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলা ও ময়নাতদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।