• আজ বুধবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২৫ মে, ২০২২ ৷

মস্কভা ধ্বংসের পর কিভে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা রাশিয়ার

Ukraine news
❏ রবিবার, এপ্রিল ১৭, ২০২২ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  গত দু’সপ্তাহ একেবারে শান্ত হয়ে গিয়েছিল কিভ। আশপাশের যে অঞ্চলগুলোতে রুশ সেনাবাহিনী দখল নিয়েছিল, ক্রমে তারাও সেখান থেকে পিছু হটেছিল। সকলে বলছিল, গোটা ইউক্রেনের আশা ছেড়ে পূর্ব দিকের উপরে নজর দিচ্ছে রাশিয়া। কিন্তু দু’দিন আগে ইউক্রেনের ক্ষেপণাস্ত্রে রুশ যুদ্ধজাহাজ মস্কভা ধ্বংস হওয়ার পর থেকে ফের অশান্ত কিভ। কিভ-নেতৃত্বকে সরাসরি হুমকি ছুড়ে দিয়ে ইউক্রেনের রাজধানীতে আজ একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাল মস্কো।

মস্কভা ধ্বংস করেছিল ইউক্রেন নেপচুন ক্ষেপণাস্ত্র। প্রথমেই কিভের কাছে ওই ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির কারখানায় পাল্টা রকেট ছোড়ে রাশিয়া। গত কালের সেই ঘটনার পরে শুক্রবার রাতভর হামলা চলেছে কিভে। রাজধানীর মেয়র ভিটালি ক্লিৎসকো জানিয়েছেন, কিভের উপকণ্ঠে ডারনিৎস্কিতে একাধিক বিস্ফোরণ ঘটেছে। উদ্ধারকারী দল ও স্বাস্থ্যকর্মীদের পাঠানো হয়েছে সেখানে। হতাহতের খবর এখনও জানা নেই। তবে পরপর হামলায় ফের আতঙ্ক গ্রাস করছে কিভকে।

অ্যানা বুডকো নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘‘শব্দ শুনলেই ভয় লাগে। গাড়ির দরজা বন্ধ করলেও আওয়াজে কেঁপে উঠি। সবসময় যেন একটা ভয় ঘিরে রেখেছে। প্রতিনিয়ত সেই আতঙ্ক জয় করার চেষ্টা করছি। বোঝাতে পারব না ঠিক…।’’ আজ দিনের শুরুতে কিভেও ক্ষেপণাস্ত্র হানা চলেছে। ক্লিৎসকো জানিয়েছেন, এক জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। অনেকে আহত। মেয়র বলেন, ‘‘ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী ব্যবস্থা রক্ষা করার চেষ্টা করছে। কিন্তু শত্রুরা নির্মম, নির্দয়।’’

মস্কভা ধ্বংসের পর থেকেই আরও বিধ্বংসী হয়ে উঠেছে রাশিয়া। তাদের বক্তব্য, ইউক্রেনের এই দুঃসাহস ও শক্তির পিছনে রয়েছে পশ্চিমের দেশগুলির মদত। গতকাল রাশিয়ার সরকারি টিভি চ্যানেলে বলা হয়েছে, সরাসরি না-হলেও নেটোর বিরুদ্ধেই লড়াই চলছে, একে ‘তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ’ও বলা যায়। আজ ফের ক্রেমলিনের হুঁশিয়ারি, পশ্চিমের দেশগুলো যদি ইউক্রেনকে এ ভাবে অস্ত্র সরবরাহ করতে থাকে, তার পরিণতি হবে ‘অকল্পনীয়’। একটি কূটনৈতিক বিবৃতিতে মস্কো বলেছে, ‘‘আমেরিকা ও নেটো অত্যন্ত শক্তিশালী অস্ত্র কিভের হাতে তুলে দিচ্ছে। এতে শুধুমাত্র আগুনে ঘি ফেলা হচ্ছে। এর পরিণতি এমন হবে, যা কেউ অনুমান পর্যন্ত করতে পারছে না।’’