• আজ বুধবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২৫ মে, ২০২২ ৷

অভিমানী মেয়েকে বাবা-মার কাছে ফিরিয়ে দিল ট্রাফিক পুলিশ

পুলিশ
❏ সোমবার, এপ্রিল ১৮, ২০২২ আলোচিত

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: রোববার (১৭ এপ্রিল) বৈশাখের কাঠফাটা রোদে সকাল ৯টা ২০ মিনিটের দিকে মহাখালী বাস টার্মিনালে ঘোরাফেরা করছিল একটি ছোট্র মেয়ে। টার্মিনালে থাকা মানুষজন দেখতে পান মেয়েটিকে, তাকে স্থানীয় কিছু লোক জড়ো হয়ে বাসে তুলে দেবার জন্য নিয়ে যেতে চাইছে।

বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হওয়ায় এক পথচারী ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক সার্জেন্ট ইকরামুল আলমকে জানান। পরে মেয়েটিকে উদ্ধার করে মহাখালী ট্রাফিকের আঞ্চলিক কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

মহাখালী ট্রাফিক পুলিশের সহকারী কমিশনার আশফাক আহমেদ বলেন, পরে তাকে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করলে মেয়েটি জানায়, তার নাম সানজিদা আক্তার রিমি, বয়স ১৩ এবং সে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণীতে পড়ে।

তার বাড়ি গাজীপুর জেলার কালিয়াকৈর থানায়। শনিবার রাতে বাবা-মার সাথে অভিমান করে রোববার ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ একা একা চন্দ্রা মোড় থেকে মহাখালী বাস টার্মিনালের বাসে করে প্রথমবারের মতো ঢাকা শহরে চলে আসে। মহাখালী বাস টার্মিনাল এলাকায় নেমে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়ে। তার কাছ থেকে তার বাবা-মার ফোন নাম্বার সংগ্রহ করে, তাৎক্ষণিক তাদের সাথে যোগাযোগ করা হয় এবং মেয়ের খোঁজ পেয়ে তারা তড়িঘড়ি করে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা করেন।

আশফাক আহমেদ বলেন, শিশুটির বাবা-মা ট্রাফিক পুলিশ বক্সে আসার আগপর্যন্ত তাকে নানানভাবে বোঝানো হয়, যাতে সে স্বাভাবিক হতে পারে এবং খুশিমনে বাবা-মার সাথে ফিরে যেতে পারে।

তার অভিভাবকরা ঢাকা পৌঁছানোর পর মহাখালী ট্রাফিক অফিসে আসেন এবং মেয়েকে সুস্থ-স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

ট্রাফিক পুলিশের কর্মকর্তারা বলেন, বাবা-মা এবং সন্তানের মাঝে যেন বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাকে এবং এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না হয় সে ব্যাপারে তাঁদের কাউন্সেলিং করা হয়েছে। বাবা লিখিত মুচলেকা দিয়ে মেয়েটিকে নিয়ে গেছেন।