🕓 সংবাদ শিরোনাম

শ্রীলংকার বিপক্ষে ঢাকা টেস্ট থেকে ছিটকে গেলেন নাইমআরিফিন শুভ-তিশাকে শুভকামনা জানালেন নওয়াজুদ্দিনবিদ্যুৎ-গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব আত্মঘাতী: এফবিসিসিআইআড়াইহাজারে মজুরি বৃদ্ধিসহ দ্রব্যমূল্যের দাম নিয়ন্ত্রণের দাবিতে শ্রমিক বিক্ষোভজাপা কোন জোটে যাবে পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত: জিএম কাদেরআগামী মাসেই পদ্মা সেতুতে দাঁড়িয়ে মানুষ পূর্ণিমার চাঁদ দেখবে: কাদেরঝড়ের কবলে পড়ে বালুবাহী বাল্কহেড ডুবিসরকারি কর্মচারীদের ৬০ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির দাবিচট্টগ্রামে পুলিশ ভ্যানে বাসের ধাক্কা, ১৫ পুলিশ সদস্য আহতগাজীপুরে অরক্ষিত ক্রসিংয়ে ট্রেন-পিকআপ ভ্যান সংঘর্ষে নিহত ৩

  • আজ শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২১ মে, ২০২২ ৷

দীর্ঘ এক যুগের নীরবতা কাটিয়ে ফিরছেন জেমস


❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৮, ২০২২ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক: জনপ্রিয় রকস্টার মাহফুজ আনাম জেমস। নামটি শুনলেই একটি ছবি ভেসে ওঠে সবার মননে, ভেসে ওঠে এক রকস্টারের অবয়ব। যার গানে বহুরাত নির্ঘুম কেটে যায় হাজারো তরুণের। শুধু বাংলাদেশে নয়, বর্তমানে এ উপমহাদেশের সবচেয়ে বড় রক তারকা তিনি। জেমস মানেই ভক্তদের কাছে অন্যরকম উন্মাদনা। যার গান না থাকলে জমে না কোনো উৎসবের আসর।

একটা সময় ছিল যখন ঈদ মানেই জেমসের নতুন গান।বিশেষ করে চাঁদরাতে প্রকাশ হতো জেমসের নতুন গান। যার অপেক্ষায় থাকতো শ্রোতা-ভক্তরা।কিন্তু দীর্ঘ এক যুগ ভক্তরা সিনেমার গানের বাইরে তাদের প্রিয় এই তারকার কণ্ঠে নতুন কোনো গান শুনতে পারেনি।

এবার অপেক্ষার পালা শেষ। জেমস আসছে দীর্ঘ একযুগ পর নতুন গান নিয়ে। এই গান জেমসের পক্ষ থেকে ভক্তদের জন্য ঈদ উপহার।

নগরবাউলের জেমস একযুগ পর নতুন গান নিয়ে আসছেন এবারের ঈদের চাঁদরাতে। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) জেমসের ফেসবুক পেজে একটি পোস্টার প্রকাশের মধ্য দিয়ে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এতে লেখা হয়েছে, ‘একযুগ পরে গুরু জেমস ফিরছেন নতুন গান নিয়ে চাঁদরাতে।’

ওই পোস্ট থেকে জানা যায়, গানটি আসছে ইউটিউবে ‘বসুন্ধরা ডিজিটাল’ নামের একটি চ্যানেল থেকে। ঈদ উপলক্ষে জেমস ভক্তদের জন্য এটি হতে যাচ্ছে সবচেয়ে চমকপ্রদ উপহার।

জেমসের ম্যানেজার রুবাইয়াৎ ঠাকুর রবিন সংবাদমাধ্যমকে  বলেন, ‘একযুগ পর জেমস ভাইয়ের নতুন গান আসছে কথা সত্য। তবে এ নিয়ে এখনই বিস্তারিত কিছু বলতে চাই না। আরও কয়েক ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে। আজ বিকেলে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে।’

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অনেক জনপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন জেমস। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য- ‘তারায় তারায়’, ‘লেইস ফিতা লেইস’, ‘সুলতানা বিবিয়ানা’, ‘হতেও পারে এই দেখা শেষ দেখা’, ‘কবিতা তুমি স্বপ্নচারিণী’, ‘দুষ্টু ছেলের দল’, ‘দিদিমনি’, ‘দুঃখিনী দুঃখ করোনা’, ‘তোর সব কিছুতে নয় ছয়’, ‘বাবা কত দিন দেখি না তোমায়’, ‘গুরু ঘর বানাইলা কী দিয়া’, ‘লিখতে পারি না কোনো গান’, ‘এক নদী যমুনা’, ‘মা’, ‘বাংলাদেশ’ ইত্যাদি।