🕓 সংবাদ শিরোনাম

জমি দখলে বাধা দেওয়ায় সন্ত্রাসী হামলা, বৃদ্ধসহ আহত-২ভারতের বেঙ্গালুরুতে বাংলাদেশি নারীকে ধর্ষণের দায়ে ১১ জনের কারাদণ্ড‘সংকট নিরসনে শ্রীলঙ্কা ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মডেল’ অনুসরন করতে পারে’স্কুল ফাঁকি দেয়া শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শাস্তির বিধান রাখা উচিত: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীটানা ৩১ দিন করোনায় মৃত্যুহীন দেশ, গত ২৪ ঘন্টায় শনাক্ত ১৬দেশের চিকিৎসা বিজ্ঞানে নতুন আবিস্কার: হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের ওষুধ ‘ন্যাসভ্যাক’রাতগভীরে ঘুম থেকে উঠে গলায় ফাঁস দিয়ে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যাবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শাবিপ্রবি পেল সর্বোচ্চ বরাদ্দবঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভা চ্যাম্পিয়াননির্বাচনে ভোটারদের না আসার প্রবণতা রয়েছে: নির্বাচন কমিশনার

  • আজ রবিবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ ৷ ২২ মে, ২০২২ ৷

চালকের বেপরোয়া ওভারটেকিংয়েই যেভাবে সড়কে ঝরল সাতটি তাজা প্রাণ


❏ শনিবার, মে ৭, ২০২২ ফিচার

নাটোর প্রতিনিধি: মহাসড়কে বেপরোয়া ওভারটেকের কারণেই দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই নারীসহ সাতজনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে । নাটোরের বড়াইগ্রামে এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২৫ জন।

গাড়ির যাত্রীরা বলছেন, গাড়িটি বেপরোয়া গতিতে চালাচ্ছিলেন চালক। অনেক যাত্রীর অনুরোধেও গতি কমাননি তিনি । তার কারণেই ঝরে গেল সাতটি তাজা প্রাণ।

আজ শনিবার সকাল ১১টার দিকে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কে মহিষভাঙ্গা এলাকায় গাজী অটো রাইস মিলের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষ্যদর্শী ও তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, ঢাকা থেকে ন্যাশনাল পরিবহনের একটি বাস একতা পরিবহনের একটি বাসকে অতিক্রম করার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা সিয়াম পরিবহনের বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। সিয়াম পরিবহনের বাসটি ছিটকে গিয়ে গাজী অটোরাইস মিলের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। ন্যাশনাল পরিবহনের বাসটিও মহাসড়কের পাশের গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে কিছুটা নেমে যায়। এতে ন্যাশনালের চার যাত্রী ও সিয়ামের দুই যাত্রী ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজনের মৃত্যু হয়। উভয় বাসের সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়। উভয় বাসের অন্তত ২৫ জন যাত্রী আহত হন।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে বনপাড়া হাইওয়ে থানা, বড়াইগ্রাম থানা ও বনপাড়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। আহতদের বনপাড়া, নাটোর ও রাজশাহীর বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়।

দুপুর ১২টার দিকে দুর্ঘটনায় আহত মোহনা আক্তার মিলি (২৬) নামে এক যাত্রীকে বনপাড়ার আমেনা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। তিনি নাটোরের লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া গ্রামের রুহুল আমিনের স্ত্রী।

যাত্রীরা বলছেন, বারবার নিষেধ করা সত্ত্বেও চালক বেপরোয়া গতিতে বাস চালাচ্ছিলেন।

হাইওয়ে থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ভুল ওভারটেকিং করার সময় এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আহত যাত্রীদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। সড়কে যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে তাঁরা কাজ করছেন।

নিহতরা হলেন—সিয়াম পরিবহনের যাত্রী নাটোর সদর থানার পাইকোরদল এলাকার প্রবাসী শাহজাহান মিয়ার ছেলে কাউছার রহমান (১৮) এবং মেয় সাদিয়া আক্তার (১২) ও শ্যালক নাটোর সদর থানার পাইকোরদল এলাকার মুক্তার হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন (৪৮) এবং ন্যাশনাল পরিবহনের যাত্রী নাটোরের লালপুর থানার ওয়ালিয়া এলাকার মোহনা আক্তার মিলি (২৬), মাগুরা সদর থানার মিজানুর রহমান (৩০), চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার ও নাটোর নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক মশিউর রহমান (৪০) ও টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার থানার বেঙ্গুনিয়া গ্রামের আব্দুল জলিল (২৬)।

নাটোরের জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, বনপাড়া পৌর মেয়র কেএম জাকির হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী, বড়াইগ্রাম থানার ওসি আবু সিদ্দিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। জেলা প্রশাসক নিহতদের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে এবং আহতদের চিকিৎসায় সহযোগিতার ঘোষণা দিয়েছেন।