বেওয়ারিস হিসেবে দাফনের ৩ দিন পর কবর থেকে মরদেহ উত্তোলন করলেন স্বজনেরা


❏ বৃহস্পতিবার, জুন ২৩, ২০২২ খুলনা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে দাফনের প্রায় তিন দিন পরে কবর থেকে খাইরুল ইসলাম রতন (৪০) নামের এক ব্যক্তির মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে।

বুধবার রাত ৮টার দিকে ছেঁউরিয়া কবরস্থান থেকে মরদেহ উত্তোলন করেন নিহতের স্বজনেরা। এ সময় কুমারখালী থানার পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

নিহত খাইরুল ইসলাম রতন ঢাকা গাজিপুর জেলার কালিগঞ্জের দক্ষিণ খালপাড়া এলাকার মৃত আহসান উল্লাহর ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনেরা জানান, প্রায় চার বছর যাবৎ রতন ছেঁউড়িয়ার বাউল সম্রাট লালন ফকিরের মাজারে ছিলেন। তাঁকে সবাই গিটার পাগল নামেই চিনতেন। গত সোমবার সকালে লালন শাহ মাজার মাঠে তাঁর মরদেহ পাওয়া যায়। পরে বেওয়ারিস হিসেবে ছেঁউরিয়া কবরস্থানে জেলা প্রশাসকের অনুমতিতে মরদেহ দাফন করা হয়। এরপর মরদেহের ছবি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ও প্রশাসনিকভাবে প্রচার করা হয়।

ছবি দেখে নিহতের মেজো ভাই শহিদুল ইসলাম মানিক ও ছোট ভাই জাহিদুল ইসলাম মুক্তা আজ বুধবার সন্ধ্যায় ছেঁউরিয়া এলাকায় আসেন। এসে রাত ৮টার দিকে কবর থেকে মরদেহ উত্তোলন করে নিয়ে যান। এ সময় কুমারখালী থানা-পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, বেওয়ারিশ হিসেবে মরদেহ দাফন করা হয়েছিল। আজ তাঁর দুই ভাই মরদেহ শনাক্ত করে উত্তোলন করে নিয়ে গেছেন।