🕓 সংবাদ শিরোনাম

ইডেন ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করে তদন্তের নির্দেশ * ধর্ষণের ঘটনা আড়াল করতে কিশোরী হত্যা, এলাকাজুড়ে উত্তেজনা, আটক ২ * রাজধানীসহ ১০ বিভাগীয় শহরে গণসমাবেশ কর্মসূচির তারিখ ঘোষণা বিএনপির * একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধী খলিল সাভার থেকে গ্রেপ্তার * কন্যা দিবসে এক ঘণ্টার ব্যবধানে তিন সন্তানের জন্ম ,নাম পদ্মা-মেঘনা-যমুনা * পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা , পলাতক স্বামী * দালালদের নিয়ন্ত্রণে পাসপোর্ট অফিস, ‘বিশেষ সংকেত’ নিয়ে ভুক্তভোগীদের ক্ষোভ * মাঝপথে তরুণীকে বাইক থেকে নামিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে চালক আটক * কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে এসএসসি পরীক্ষার্থী * প্রধানমন্ত্রী শুধু দেশের দূরদর্শী নেতা নন, সারা বিশ্বেও নন্দিত নেতা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী *

  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৪ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৷

ফরিদপুরে আওয়ামীলীগ নেতার ওপর হামলা

Faridpur news
❏ বৃহস্পতিবার, জুন ৩০, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের মধুখালীতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. হামিদুর রহমানের (৬৬) ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজনের নাম উল্লেখসহ আরো ২ থেকে ৩ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে স্থানীয় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন মহলে তীব্র ক্ষোভের পাশাপাশি নিন্দার ঝড় বইছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বিকালে ফরিদপুরের মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ওসি জানায়, মঙ্গলবার (২৮ জুন) দিনগত রাত ৯টার দিকে উপজেলা কমপ্লেক্সে সোনালী ব্যাংক শাখার সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই রাতেই অভিযুক্ত তিনজনকে আটকের পর বুধবার(২৯ জুন) সকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়। ওইদিন বিকেলেই তারা জামিনে বেরিয়ে আসেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও মামলা সূত্রে জানা যায়, মধুখালী পৌরসভার পশ্চিম গাড়াখোলা বাসিন্দা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. হামিদুর রহমান ওরফে হামিদকে মঙ্গলবার রাতে উপজেলা কমপ্লেক্সে সোনালী ব্যাংকের নিচে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক,বর্তমানে পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. বাচ্চু শেখ (৪০),রবিউল ম্যোলা (৪৫) ও হাবিব শেখসহ (৩৫) কয়েকজন মিলে হামলা চালায়। এ সময় তার উপর হামলা চালিয়ে মারধর ও গায়ের পাঞ্জাবী টেনে ছিড়ে ফেলে।

এ ব্যপারে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী, মধুখালী উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাই ও পৌর যুবলীগ নেতা মোঃ হামিদুল ইসলাম বাবুল বলেন, মধুখালী পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাচ্চুর হাতে অপমান, নির্যাতিত হতে হলো উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হামিদুর রহমানকে। যা খুবই দুঃখজনক। মেনে নেওয়া যায়না।

এ বিষয়ে মধুখালী উপজেলার প্রাক্তন ছাত্রলীগ নেতা ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মির্জা প্রিন্স বলেন, হামিদুর রহমান একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা,উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি। দল ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়েও লাঞ্ছিত-হামলার শিকার হতে হয়। যা অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। ঘটনার মুল অভিযুক্ত প্রধান আসামি একদিনেই জামিনে বেরিয়ে আসল, এই হলো রাজনৈতিক অবস্থা। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, একজন বীরমুক্তিযোদ্ধা কোথায় গেলে তার এই অপমানের বিচার পাবেন আওয়ামী লীগের নেতারা কি বলতে পারবেন ?

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও বীরমুক্তিযোদ্ধা হামিদুর রহমানের উপর হামলার বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত মো. বাচ্চু শেখের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ হামিদুর রহমান বলেন, এটা কোন ভাবেই মানতে পারছি না। সারাজীবন রাজনীতি করে শেষ বয়সে লাঞ্ছিত উপহার পেলাম। এটা শুধু আমার জন্যই লজ্জাকর নয়। আওয়ামী লীগের জন্য লজ্জাকর। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছি। আসামীরা বিএনপি ও হাইব্রিড। একদিনেই জামিনে বেরিয়ে এসেছে। আমি এর বিচার আর কার কাছে দিবো আল্লাহর কাছে বিচার দিয়ে রাখলাম।

মধুখালী পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খন্দকার মোরশেদ রহমান লিমন বলেন, আসলে বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। যা বলার ভাষা নেই।

এ বিষয়ে মধুখালী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি সত্যিই দুঃখজনক একটা ঘটনা। এ ঘটনায় সাংগঠনিকভাবে দলীয় সভায় আলোচনা করা হবে।

এ বিষয়ে মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.শহিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলার পর পরই আমরা এজাহার নামীয় তিনজন আসামী মো. বাচ্চু শেখ,রবিউল ম্যোলা ও হাবিব শেখকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন