🕓 সংবাদ শিরোনাম

নারী সহকর্মীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে দুই নিরাপত্তা কর্মকর্তা গ্রেপ্তার * গাছ থেকে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার * পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষকালব্যাপী অনুষ্ঠানমালা * যে সংবাদের শিরোনামে ‘বিব্রত’ সময়ের কণ্ঠস্বর ! * গিনেস রেকর্ডে ফের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করলেন ঠাকুরগাঁওয়ের রাসেল * অনিশ্চয়তার বেড়াজাল পেরিয়ে অবশেষে ঢাকা আসছেন ‘ড্যান্স কুইন’ নোরা ফাতেহি * বাসের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত * বড়দের সামনে সিগারেট খাওয়া নিয়ে দ্বন্দে কয়েকদফা সংঘর্ষ, আহত ১১ জন * বগুড়ায় ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে সাবেক সেনা সদস্য খুন * পণ্ড বিয়ের আয়োজন, বর গেলো শ্রীঘরে, অর্থদণ্ড হলো কনের বাবার *

  • আজ শনিবার, ২৩ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ৮ অক্টোবর, ২০২২ ৷

ঈদযাত্রা: মোটরসাইকেল ঠেকাতে রাজধানীর প্রবেশমুখে বসবে পুলিশের তল্লাশি চৌকি


❏ মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০২২ প্রধান খবর

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: ঈদের আগে ও পরে সাত দিন এক জেলা থেকে অন্য জেলায় মোটরসাইকেল চালানো যাবে না। বন্ধ থাকবে মহাসড়কে রাইড শেয়ারিং। রোববার (৩ জুলাই) সড়ক পরিবহন সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী এ তথ্য জানান। ৭ জুলাই থেকে ১৩ জুলাই পর্যন্ত এটি বলবৎ থাকবে।

সরকারি এ নির্দেশনা পরিপালনে আগামী ৭ জুলাই থেকে রাজধানীর প্রবেশমুখে প্রতিটি মোটরসাইকেল আটকানো হবে। তবে রাজধানী থেকে আশপাশে ঢাকা জেলার অধীন কোনো গন্তব্যে চলাচলকারী যানবাহন এর আওতামুক্ত থাকবে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

যোগাযোগ করা হলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মো. মুনিবুর রহমান বলেন, সরকারিভাবে নির্দেশনা জারি হয়েছে, ঈদের আগে ও পরে মোট সাত দিন জেলা থেকে জেলায় মোটরসাইকেল চলবে না। আমরা এটি খুবই শক্তভাবে প্রতিপালন করব।

তিনি বলেন, গত ঈদে অনেক মানুষ মোটরসাইকেলযোগে দূরদূরান্তে গেছেন ঈদ করতে। পথে যেমন দুর্ঘটনা ঘটেছে তেমনি যানজটেরও সৃষ্টি হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী তাই এবার রাজধানীর প্রতিটি প্রবেশপথে পুলিশের চেকপোস্ট থাকবে। রাজধানী থেকে থেকে সাভার-আমিনবাজারসহ ঢাকা জেলার আওতাধীন এলাকা বাদে অন্য কোনো জেলার মোটরসাইকেল চলাচল করতে দেওয়া হবে না।

তবে তিনি বলেন, বিশেষ পরিস্থিতিতে ছাড় দেওয়া যেতে পারে, যেমন কেউ মুমূর্ষু রোগী নিয়ে আসছেন বা জরুরি হাসপাতালে যেতে হবে। এর বাইরে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

এদিকে ঈদুল আজহা উপলক্ষে যান চলাচল নিয়ে ১২ দফা নির্দেশনা দিয়েছে ডিএমপি ট্রাফিক বিভাগ।

নির্দেশনাগুলো হলো: ঢাকা মহানগরীতে দূরপাল্লার ও আন্তজেলা বাস টার্মিনালের অভ্যন্তরে এবং বাইরের সড়কে বাস রেখে বা থামিয়ে যাত্রী ওঠানো যাবে না, যাত্রীরা টার্মিনালের ভেতরে থাকা অবস্থায় বাসের আসন গ্রহণ করতে পারেন, সংশ্লিষ্ট বাসের প্রতিনিধিদের বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে, ঢাকা মহানগরীতে আন্তজেলা ও দূরপাল্লার বাসগুলো টার্মিনালসংলগ্ন প্রধান সড়কের অংশ দখল করে দাঁড়াবে না, ভ্রমণকালে ঢাকা মহানগরের প্রবেশ ও বের হওয়ার পথের গণপরিবহনগুলো শৃঙ্খলা মেনে চলতে হবে যেন কোনো অযাচিত যানজটের সৃষ্টি না হয়, ঢাকা মহানগরী থেকে ছেড়ে যাওয়া দূরপাল্লার যানবাহনগুলোকে অতিরিক্ত যাত্রী ও মালামাল বহন থেকে নিবৃত্ত থাকতে হবে, আন্তজেলা পরিবহনের যাত্রীদের বা গমনপ্রত্যাশীদের প্রধান সড়কে এসে অপেক্ষা বা দাঁড়িয়ে না থেকে টার্মিনালের ভেতরে অবস্থান করতে হবে, ঢাকা মহানগরী থেকে দূরপাল্লার রুটপারমিটবিহীন বা অননুমোদিত রুটে কোনো বাস চলাচল করবে না।

এ ছাড়া করোনার ঊর্ধ্বগতি হওয়ায় পরিবহনচালক ও যাত্রীদের যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে যাতায়াত করার অনুরোধ করা হয়।

এর আগে গত রোববার (৩ জুলাই) সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক জরুরি বৈঠক শেষে সড়ক পরিবহন সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী জানান, যৌক্তিক কারণ ছাড়া ঈদের আগে তিন দিন, ঈদের দিন এবং ঈদের পরে তিন দিন- এই সাত দিন এক জেলা থেকে আরেক জেলায় মোটরসাইকেল চলাচল করবে না। একই সময়ে দেশের সব মহাসড়কে রাইড শেয়ারিং করা যাবে না। কোনো জরুরি কারণে এক জেলা থেকে অন্য জেলায় যেতে হলে তা পুলিশকে জানাতে হবে। পুলিশের অনুমতি সাপেক্ষে এক জেলার মোটরসাইকেল অন্য জেলায় যেতে পারবে।

তিনি আরও জানান, এই সিদ্ধান্তের বাইরে ঢাকার মোটরসাইকেল ঢাকায় চালাতে হবে। চট্টগ্রামের মোটরসাইকেল চট্টগ্রামে এবং বরিশালের মোটরসাইকেল বরিশালে চালাতে হবে।