🕓 সংবাদ শিরোনাম

ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ এসেছে, স্বাভাবিক হবে দ্রুতই * আফ্রিকায় আইইডি বিস্ফোরণে ৩ বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত * উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গোলাগুলি: কিশোরীর মৃত্যু * পাবনায় দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাককে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কা, নিহত ২ * হজে যাওয়ার ৬৫ বছরের বয়সসীমা থাকছে না: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী * মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ‘ভুল’ বক্তব্যের প্রতিবাদে মানববন্ধন: আ.লীগ নেতার ভুল স্বীকার * কণ্ঠশিল্পী আসিফের ছেলের বিয়ে সম্পন্ন * সকল ধর্মের মানুষ মিলেই বাংলাদেশ: শিক্ষামন্ত্রী * পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি: আট কারণ ও পাঁচ সুপারিশ উল্লেখ করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা * রংপুরে পূজা দেখে ফেরার পথে গাড়িচাপায় ২ জনের মৃত্যু *

  • আজ মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ৪ অক্টোবর, ২০২২ ৷

টানা ৫ দিন অনশনের পর অবশেষে বিয়ের দাবীতে তরুণীর বিষপান


❏ বৃহস্পতিবার, জুলাই ৭, ২০২২ বরিশাল

পটুয়াখালী প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে পাঁচ দিন অনশন করার পরও বিয়ে না করায় বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন এক তরুণী (২২)। আজ শনিবার সকালে বাবার বাড়িতে তিনি বিষ পান করেন। বর্তমানে তিনি মির্জাগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

প্রেমিকের নাম রায়হান (২৫)। তিনি উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের মতি মৃধার ছেলে।

স্থানীয় ও পরিবারের সূত্রে জানা যায়, আট মাস আগে তাঁদের দুজনের পরিচয় হয়। বিয়ের দাবিতে ওই তরুণী গত সোমবার থেকে গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত সুবিদখালী ওই যুবকের বাড়িতে অনশনে বসেন। তবে শুক্রবার ওই নারীর বাবা জব্বার জোমাদ্দার সুবিদখালী রায়হানের বাসা থেকে মেয়েকে বাড়িতে নিয়ে যান। আজ সকালে বাবার বাড়িতেই তিনি বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

তরুণীর দাবি, সাড়ে চার বছর আগে পাশের গ্রামের একজনের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। সে সংসারে তাঁর তিন বছরের একটি ছেলে রয়েছে। স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হলে, রায়হানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ সময় বিয়ের প্রলোভন দিয়ে রায়হান তাঁকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক করেন। এমনকি স্বামীকে তালাক দিতেও বাধ্য করেন। এখন বিয়ের জন্য চাপ দিলে রায়হান বিয়ে করতে রাজি হচ্ছেন না। বিয়ের দাবিতে রায়হানের বাড়িতে পাঁচ দিন তিনি অবস্থান নেন।

মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক উমর ফারুক জাবির বলেন, ‘বিষপান করা এক নারীকে তাঁর স্বজনেরা আজ সকালে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তাঁর পাকস্থলী পরিষ্কার করে সুস্থ করা হয়েছে। এরপর ওই রোগী কাপড় পরিবর্তনের অজুহাতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে কিছু না বলে হাসপাতাল কম্পাউন্ড ত্যাগ করেন। পরবর্তীতে তাঁকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি।’

মির্জাগঞ্জ থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, ‘বিষয়টি শুনে আমি হাসপাতালে পুলিশ পাঠিয়েছি। ভিকটিমকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে এ ব্যাপারে এখনো কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’