🕓 সংবাদ শিরোনাম

ইডেন ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করে তদন্তের নির্দেশ * ধর্ষণের ঘটনা আড়াল করতে কিশোরী হত্যা, এলাকাজুড়ে উত্তেজনা, আটক ২ * রাজধানীসহ ১০ বিভাগীয় শহরে গণসমাবেশ কর্মসূচির তারিখ ঘোষণা বিএনপির * একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধী খলিল সাভার থেকে গ্রেপ্তার * কন্যা দিবসে এক ঘণ্টার ব্যবধানে তিন সন্তানের জন্ম ,নাম পদ্মা-মেঘনা-যমুনা * পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা , পলাতক স্বামী * দালালদের নিয়ন্ত্রণে পাসপোর্ট অফিস, ‘বিশেষ সংকেত’ নিয়ে ভুক্তভোগীদের ক্ষোভ * মাঝপথে তরুণীকে বাইক থেকে নামিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে চালক আটক * কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে এসএসসি পরীক্ষার্থী * প্রধানমন্ত্রী শুধু দেশের দূরদর্শী নেতা নন, সারা বিশ্বেও নন্দিত নেতা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী *

  • আজ বৃহস্পতিবার, ১৪ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৷

শুধু গদবাঁধা সংবাদ নয়; ইহা সতর্কতাও! ফ্রি ফায়ারের আসক্তি থেকে মানসিক ভারসাম্যহীন কিশোর


❏ বুধবার, জুলাই ১৩, ২০২২ আলোচিত বাংলাদেশ

যশোর প্রতিনিধি: যশোরের ঝিকরগাছায় ‘ফ্রি ফায়ার’ গেমে আসক্ত হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছে তামিম হোসেন (১৭) নামে এক কিশোর।

গত এক সপ্তাহ ধরে চিকিৎসাধীন রয়েছে সে। বর্তমানে চিকিৎসকের পরামর্শে বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তামিম উপজেলার সৈয়দপাড়া গ্রামের সাবুর আলীর ছেলে।

তামিমের পরিবার বলছে, কিশোর তামিম দীর্ঘদিন ধরে মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলত। সব সময় সে খেলা নিয়ে ব্যস্ত থাকত। পরিবারের বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে মোবাইল গেমে পড়ে থাকত। এরপর গত বেশ কিছুদিন ধরে সে অস্বাভাবিক আচরণ করতে শুরু করে। পরে তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়।

তামিম হোসেনের ভাগনে আল আমিন বলেন, ‘তামিম করোনার আগে টাওরা আজিজুর রহমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ত। করোনাকালীন স্কুল বন্ধ হয়ে গেলে তামিম মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেমে আসক্ত হয়ে পড়ে। পরে স্কুল খুললেও সে আর স্কুলে যায়নি। ধীরে ধীরে মোবাইল গেমে আসক্ত হয়ে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে।’

আল আমিন আরও বলেন, ‘গত ঈদুল ফিতরের পরের দিন থেকে তামিম একেবারে ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। পরের দিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকের পরামর্শে বাড়িতে আছে, অধিকাংশ সময় ঘুমাচ্ছে। তবে ঘুম থেকে জেগে গেলে ফ্রি ফায়ার গেম সম্পর্কিত নানা ধরনের কথাবার্তা বলছে।’

যশোর মেডিকেল কলেজের মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাক্তার আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘মোবাইল গেমে আসক্ত হয়ে সে ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছে। চিকিৎসায় ভালো হবে। সে ক্ষেত্রে অধিক ঘুমও স্বাভাবিক রাখতে হবে।’

তামিমের বাবা সাবুর আলী বলেন, ‘ছেলে গেমে আসক্ত হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছে এটা আমার জন্য খুবই খারাপ খবর। সবাই যেন তাঁদের সন্তানদের মোবাইলে ফ্রি ফায়ার গেম খেলতে না দেয়।’

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন