• আজ বুধবার, ২০ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ৫ অক্টোবর, ২০২২ ৷

বৈধ লাইসেন্স না থাকায় ফরিদপুরে ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিক সিলগালা

Faridpur news
❏ রবিবার, জুলাই ১৭, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: বৈধ লাইসেন্স না থাকায় ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় নিউ সেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও একই মালিকের একটি ক্লিনিককে সিলগালা করে দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রবিবার (১৭ জুলাই) দুপুরে ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিকটিকে সিলগালা ও বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এসময় ক্লিনিকটির মালিক মেডিকেল এ্যাসিস্ট্রেন্ট হয়ে তার নামের পূর্বে ডাক্তার পদবি ব্যবহার করার অপরাধে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ক্লিনিকের সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়।

অপরদিকে, একই দিনে ভাঙ্গা বাজারের তিনটি ফার্মেসীর দোকানে এ্যালোপ্যাথি ও আয়ুর্বেদিক ওষুধ একই স্থানে রাখার অপরাধে প্রত্যেক ফার্মেসিকে এক হাজার টাকা করে জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। ফার্মেসি তিনটি হচ্ছে- জিহাদ ফার্মেসী, পপুলার ফার্মেসী ও অধিকারী ফার্মেসী।

ভ্রাম্যমাণ আদালতটি পরিচালনা করেন, ভাঙ্গার সহকারী কমিশনার (ভূমি) এ এস এম মোস্তাফিজুর রহমান ও ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কনসালটেন্ট ডা. গোপাল দেব ও মেডিকেল অফিসার ডা. ফিরোজ রশিদ (লিমন)।

এ বিষয়ে ভাঙ্গা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস,এম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ডায়াগনষ্টিকে বৈধ লাইসেন্স না থাকায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং একই মালিকের ক্লিনিক সেন্টারের লাইসেন্সের জন্য অনলাইনে আবেদন করেছেন বলে আমাদের জানায়, তখন তাদের তিন দিনের সময় দেওয়া হয়েছে। তবে ক্লিনিকের সকল কার্যক্রম আপাতত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এ দিকে এ বিষয়ে ডা: গোপাল দেব বলেন, ক্লিনিকের মালিক একজন মেডিকেল এসিস্টেন্ট। কিন্তু তিনি নামের পূর্বে ডাঃ পদবি ব্যবহার করে আলট্রাসোনোগ্রাম করার অপরাধে নিউ সেবা ডায়াগনষ্টিক সেন্টার ও ক্লিনিককে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সিলগালা ও সকল কাজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।