🕓 সংবাদ শিরোনাম

❏ অ্যাম্বুল্যান্সে উঠিয়ে নিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক চালক * ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবল মাঠে সংঘর্ষ, নিহত বেড়ে ১৭৫ * অনলাইনের আওতায় আসছে সরকারি টিএ-ডিএ বিল * টোল প্লাজায় থানার ওসি ও গাড়িচালকে কুপিয়ে মোবাইল-টাকা ছিনতাই ! * প্রবাসী ছদ্মবেশে যেভাবে বিমানবন্দরে প্রবাসীদের সর্বস্ব লুটে নিতেন অজ্ঞান পার্টি * সবজির হাটে নিয়ন্ত্রণ হারানো ট্রাক, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫ * রাতভর ফ্ল্যাটে আটকে কিশোরী ও শিশুকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, আটক ৫ অভিযুক্ত * কুবিতে ছাত্রলীগের দু-পক্ষের প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া, হল বন্ধের ঘোষণা * অটোরিকশায় তরুনীকে যৌন হয়রানি, কারাগারে এএসআইসহ ২ জন * যুগপৎ আন্দোলনে বড় ‘চমক’ দেখানোর আভাস বিএনপির *

  • আজ রবিবার, ১৭ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২ অক্টোবর, ২০২২ ৷

টাঙ্গাইলে অবৈধ অ্যাসিড বিক্রির দায়ে তিন জনের কারাদন্ড

Tangail Judges court
❏ মঙ্গলবার, জুলাই ১৯, ২০২২ ঢাকা

তোফাজ্জল, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট (টাঙ্গাইল): টাঙ্গাইলে অবৈধভাবে অ্যাসিড বিক্রির দায়ে তিন জনকে তিন বছর করে সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

অ্যাসিড অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জেলা ও দায়রা জজ ফাহমিদা কাদের মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) দুপুরে এই রায় দেন। রায়ে দন্ডিত প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়, অনাদায়ে আরও তিন মাস করে কারাদন্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

দন্ডিতরা হলেন, টাঙ্গাইল সদর উপজেলার গালা ইউনিয়নের পাছ বেথৈর গ্রামের আনন্দ দত্তের ছেলে অনন্ত দত্ত, হেলাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল লতিফ এবং করটিয়া ইউনিয়নের নগরজলফৈ গ্রামের কাদের মিয়ার ছেলে চান মিয়া।

টাঙ্গাইলের সরকারি কৌশুলি (পিপি) এস আকবর খান জানান, ২০১৮ সালের ১৯ জুলাই র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) একটি টহল দল শহরের ছয়আনী বাজার এলাকার অনামিকা জুয়েলার্সের সামনে থেকে ৩৫ কেজি নাইট্রিক অ্যাসিডসহ দন্ডিত তিনজনকে আটক করে। তারা সেখানে অবৈধভাবে অ্যাসিড বিক্রি করছিলেন। আটকের পর তারা অ্যাসিড বিক্রির বৈধ লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হন।

পরে র‌্যাবের উপসহকারি পরিচালক মো. নাজিম উদ্দিন বাদি হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে টাঙ্গাইল সদর থানার উপপরিদর্শক আনোয়ার হোসেন ২০১৮ সালের ২০ অক্টোবর ওই তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। মামলায় ১১ জনকে স্বাক্ষী করা হয়। রায় ঘোষণার পর তিনজনকেই টাঙ্গাইল জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।