নূপুর শর্মাকে হত্যা করতে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে পাকিস্তানি যুবক


❏ বুধবার, জুলাই ২০, ২০২২ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করে উপমহাদেশের মুসলিমদের রোষের মুখে পড়েন বিজেপির সাবেক মুখপাত্র নূপুর শর্মা। এবার সেই নূপুর শর্মাকে হত্যার উদ্দেশে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতে ঢুকে গ্রেপ্তার হয়েছেন এক পাকিস্তানি। গ্রেপ্তার ওই পাকিস্তানির নাম রিজওয়ান আশরাফ।

ভারতের গোয়েন্দা পুলিশ সংস্থা ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো (আইবি) ও অন্যান্য গোয়েন্দা সংস্থার একটি যৌথ দল গত শনিবার (১৬ জুলাই) রাত ১১ টার দিকে দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য রাজস্থানের শ্রীগঙ্গানগর জেলা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে জানান, শনিবার রাতে রাজস্থানের হিন্দুমালকোট সীমান্ত এলাকায় সন্দেহজনক গতিবিধির জেরে প্রথমে আটক ও পরে তল্লাশি করা হয় রিজওয়ানকে।

‘তল্লাশির সময় তাঁর কাছ থেকে একটি ১১ ইঞ্চি লম্বা ছুরি, জিহাদি বই, কাপড় ও খাবার পাওয়া যায়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানিয়েছেন, তাঁর বাড়ি পাকিস্তানের পাঞ্জাব রাজ্যের উত্তরাঞ্চলীয় শহর মান্দি বাহাউদ্দিনে। নূপুর শর্মাকে হত্যার জন্যই সীমান্ত পাড়ি দিয়ে ভারতে ঢুকেছেন তিনি,’ এনডিটিভিকে বলেন ওই কর্মকর্তা।

‘(প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে) আরও জানা গেছে, আট দিন আগে ভারতে ঢুকেছিলেন রিজওয়ান। নূপুর শর্মাকে হত্যার জন্য রাজস্থান ত্যাগের আগে আজমিরের দরগায় নামাজ আদায়ের পরিকল্পনা ছিল তাঁর। দরগায় যাওয়ার জন্যই হিন্দুমালকোট এলাকায় ঘোরাঘুরি করছিলেন তিনি,’ যোগ করেন ওই কর্মকর্তা।

এদিকে হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, জানায়, একাধিক আইনের আওতায় (বিদেশি আইন, পাসপোর্ট আইন এবং অস্ত্র আইন) ওই যুবকের বিরুদ্ধে এফআইআর রুজু করা হয়েছে। অন্য কোনও ব্যক্তি বা কোনও সংগঠনের সঙ্গে ধৃতের যোগসূত্র আছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, গ্রেপ্তার ওই যুবককে স্থানীয় আদালতে পেশ করা হলে পাঁচদিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।