নীলফামারীতে মামার আঘাতে ভাগ্নের মৃত্যু

Nilpamari news
❏ বৃহস্পতিবার, জুলাই ২১, ২০২২ রংপুর

মো. ফরহাদ হোসাইন, নীলফামারী প্রতিনিধি:নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মামার আঘাতে খালেদ মাসুম (২৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে।

বুধবার (২০ জুলাই) দুপুর আনুমানিক ২টার দিকে উপজেলার পূর্ব ছাতনাই ইউনিয়নের অদুরে ফেডারেশন বাজার এলাকায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। খালেদ মাসুম ভ্যানচালক মনোয়ার হোসেন মনুর ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, “জমিসংক্রান্ত বিরোধে বুধবার দুপুরে ফেডারেশন বাজারে মাসুম ও তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের মাঝে হাতাহাতি শুরু হয় এমন পর্যায়ে আহত হয়ে ঘটনাস্থলে মাসুম মারা যান।”

ইউপি সদস্য আঃ ওয়াহেদ বলেন, “দীর্ঘ দিন ধরে মাসুম ও শের আলী, কদবানু, ফখরদ্দিন, মালেকাদের ওয়ারিশ নিয়ে দ্বন্দ্ব চলছে। ইতিমধ্যে ইউপি চেয়ারম্যান বিরোধীতা মিমাংশা করে দেন। উক্ত মিমাংশা উভয় পক্ষ মেনে না নিয়ে নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বে লিপ্তে জড়িয়ে যায়। এতে আহত হয়ে খালেদ মাসুম নিহত হন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খান বলেন, “দীর্ঘদিন ধরে মাসুমদের মধ্যে ওয়ারিশের জমি নিয়ে রিধোধ চলছে। এমন পর্যায়ে আজ ফেডারেশন বাজারে তার পরিবারের সদস্যদের দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয় এমন সময় তার মাসুমের মামা মাসুমকে পাট্টা দিয়ে আঘাত করলে ঘাড়ের বাপাশে লেগে আহত হয়। এমন অবস্থায় সে ঘটনাস্থলে মারা যান।”

এবিষয়ে ডিমলা থানার অফিসার ইন-চার্জ লাইছুর রহমান বলেন, “এ ঘটনায় এখনও আটক বা কোনো মামলা হয়নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।”