ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি সিদ্দিককে দুদকে তলব

Faridpir News
❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৪, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: অবৈধ সম্পদসহ বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (১ আগস্ট) দুদকের ফরিদপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয় থেকে পাঠানো নোটিশে তাকে আগামী ১৬ আগস্ট হাজির হয়ে বক্তব্য দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

দুদক উপ-পরিচালক রেজাউল করিম সই করা তলবি নোটিশ তার ফরিদপুরের বাড়ির ঠিকানায় পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। পুলিশের গোয়েন্দা শাখার কাছে চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজির অভিযোগ স্বীকার করেছেন সিদ্দিকুর।

১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দি সূত্রে জানা যায়, জবানবন্দিতে সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ক্ষমতাসীন দলের রাজনীতিবিদদের সঙ্গে সমন্বয় রেখে ঠিকাদারি ব্যবসা শুরু করেন তিনি। কিছু বছর ঢাকায় ব্যবসা করার পর ২০১৬ সালের দিকে আবার ফরিদপুরে চলে যান। সেই সময়ে ঠিকাদারি ব্যবসায় গণপূর্ত ও শিক্ষা অধিদপ্তরের ব্যবসা শুরু করেন। সেখানে ১০ থেকে ১৩ শতাংশ কমিশনের বিনিময়ে কাজ করতে হয়েছে। ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও আওয়ামী লীগের দলীয় প্রোগ্রামে ডোনেশন দিতে হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন প্রভাবশালী ব্যক্তিকে চাঁদা দিয়ে ঠিকাদারি কাজ করেছেন।

ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিককে চাঁদাবাজির মামলায় ২০২১ সালে ১০ ডিসেম্বর ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সহযোগিতায় ধানমন্ডির ১১ নম্বর সড়কের একটি ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। যদিও বর্তমানে তিনি জামিনে আছেন।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, সিদ্দিকুর রহমানের বিরুদ্ধে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় চারটি মামলা আছে। এর মধ্যে তিনটি মামলা চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড সম্পর্কিত। অপর একটি হত্যা মামলা। চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড সম্পর্কিত তিনটি মামলায় তার নামে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে। হত্যা মামলাটি তদন্তাধীন। এছাড়া তার বিরুদ্ধে আরও চারটি সিআর মামলা আছে।