• আজ বুধবার, ২০ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ৫ অক্টোবর, ২০২২ ৷

ফরিদপুরে কিশোরীকে গণধর্ষণ

Faridpur news
❏ মঙ্গলবার, আগস্ট ৯, ২০২২ ঢাকা

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় মোবাইল ফোন দেওয়ার কথা বলে এক কিশোরীকে (১৬) পালাক্রমে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়ারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জিয়ারুল ইসলাম জানায়, এঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদি হয়ে সোমবার (৮ আগস্ট) দিনগত রাতে ভাঙ্গা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। মামলায় ৪ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরও চারজনকে আসামী করা হয়েছে।

পুলিশ ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে উপজেলার মালিগ্রাম থেকে মুন্সি আসাদুজ্জামান (৬০) নামের একজনকে আটক করেছে। সে মৃত মুন্সী আব্দুস সাত্তারের পুত্র। ধর্ষণের শিকার কিশোরীর বাড়ি আজিমনগর ইউনিয়নের একটি গ্রামে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রবিবার (৭ আগস্ট) সকালে মোবাইল ফোন দেওয়ার কথা বলে ওই কিশোরীকে তার প্রেমিক মেহেদী হাছান মালিগ্রামের একটি মার্কেটে ডেকে আনে। এরপর ওই প্রেমিক তার কয়েক বন্ধু মিলে কিশোরীকে নিয়ে সারাদিন বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে বেড়ায়। সন্ধ্যা হওয়ার পর মালিগ্রামের আছাদুজ্জামানের দোতলা বাসায় ওই কিশোরীকে আটকিয়ে ৪/৫ জন বন্ধু মিলে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়ারুল ইসলাম জানান, এঘটনায় ভাঙ্গা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষা জন্য ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনার সাথে জড়িত এক জনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশ কাজ করছে।