• আজ বুধবার, ২০ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ৫ অক্টোবর, ২০২২ ৷

পান্থপথের আবাসিক হোটেল থেকে নারী চিকিৎসকের গলাকাটা মরদেহ; গ্রেপ্তার ঘাতক


❏ বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১১, ২০২২ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা : রাজধানীর পান্থপথের একটি আবাসিক হোটেল থেকে সদ্য এমবিবিএস পাস জান্নাতুল নাঈম সিদ্দীক (২৭) নামের এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় ঘাতক রেজাউলকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

আজ বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রাম শহর থেকে ঘাতক রেজাউল করিম রেজাকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব-২।

গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

এর আগে গতকাল বুধবার রাতে গলাকাটা অবস্থায় জান্নাতুল নাঈমের মরদেহ উদ্ধার করে কলাবাগান থানা-পুলিশ।

পান্থপথের আবাসিক হোটেল থেকে নারী চিকিৎসকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

এই ঘটনায় নিহতের বাবা অবসরপ্রাপ্ত চিকিৎসক শফিকুল ইসলাম একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় তিনি অভিযোগ করেছেন, প্রেমিক রেজাউল করিম রেজাই তাঁর মেয়েকে হত্যা করেছেন।

কলাবাগান থানার ওসি মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘ফ্যামিলি সার্ভিস অ্যাপার্টমেন্ট নামের একটি আবাসিক হোটেলে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে তাঁরা দুজন উঠেছিলেন। হোটেলটির চতুর্থ তলার ৩০৫ নম্বর কক্ষ থেকে গলাকাটা অবস্থায় জান্নাতুল নাঈমের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়।’

জান্নাতুলের পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, এই নারী চিকিৎসক মগবাজার কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে এমবিবিএস পাস করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গাইনি বিষয়ে একটি কোর্সে অধ্যয়নরত ছিলেন। নিহতের পরিবার জানিয়েছে, রেজাউল তাঁদের পূর্ব পরিচিত এবং দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

এ দিকে মরদেহ উদ্ধারের সময়ে সুরতহালে কলাবাগান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নার্গিস আক্তার উল্লেখ করেন, তার থুতনিতে, ঠোঁটে, গলায় সাড়ে ৮ ইঞ্চি, বাম কাঁধে দেড় ইঞ্চি, দুই বৃদ্ধাঙ্গুলিতে, বুকের মাঝখানে, পেটে ৬টা কাটা জখম রয়েছে। এ ছাড়া তার পিঠে একটি, বাম পায়ের হাঁটুর উপড়ে ছিলা ও হাঁটুর নিচে কাটা জখম রয়েছে।