• আজ মঙ্গলবার, ১২ আশ্বিন, ১৪২৯ ৷ ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৷

লালমনিরহাটে ৫ সাংবাদিকের উপর হামলা, সাংবাদিক সংগঠনের ক্ষোভ প্রকাশ

Lalmonirhat news
❏ শুক্রবার, আগস্ট ১২, ২০২২ রংপুর

মো. ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি:  লালমনিরহাটে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে পৃথকভাবে দুর্বৃত্তদের হামলায় ৫জন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। লালমনিরহাট রিপোর্টার্স ইউনিটির নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ।

শুক্রবার(১২ আগস্ট) সন্ধ্যায় আহতদের ৪ জনকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন, যমুনা টিভি’র লালমনিরহাট প্রতিনিধি আনিছুর রহমান লাডলা ও ক্যামেরা পার্সন আহসান হাবিব, প্রথম আলো’র লালমনিরহাট প্রতিনিধি আব্দুর রব সুজন, এখন টিভি’র মাহফুজুল ইসলাম বকুল ও দৈনিক আজকের পত্রিকার হাতীবান্ধা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম রবি।

স্থানীয়রা জানান, লালমনিরহাট সদর উপজেলার পঞ্চগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আজিজার রহমান মন্ডলের ছোট ছেলে ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি দুই সন্তানের জনক সুলতান মন্ডল (৩৮) প্রতিবেশী এক গৃহবধূর সাথে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। কয়েক দিন আগে সেই গৃহবধূকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হন সুলতান মন্ডল। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর পরিবার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

সে ঘটনার তথ্য সংগ্রহ করতে শুক্রবার বিকেলে ঘটনাস্থলে যান ৪ সাংবাদিক। তথ্য সংগ্রহ শেষে সুলতান মন্ডলের বাড়ির পাশে হঠাৎ তাদের পথরোধ করেন আজিজার রহমান মন্ডল ও তার বড় ছেলে সাহেদ মন্ডল। এ সময় সাহেদ মন্ডল সাংবাদিকদের হাতে থাকা ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ভাংচুর করেন এবং টাইফোর্ট দিয়ে সাংবাদিকদের এলোপাতারি মারপিট শুরু করেন। পরে স্থানীয়রা আহত সাংবাদিকদের উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

হাসপাতালে ভর্তি এখন টিভি’র লালমনিরহাট প্রতিনিধি মাহফুজুল ইসলাম বকুল বলেন, তথ্য সংগ্রহ শেষ করে গাড়িতে উঠার পরপরেই হুট করে সাহেদ মন্ডল এসে পথরোধ করে ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ভেঙ্গে ফেলেন। কিছু বুঝে উঠার আগেই টাইফোর্ট দিয়ে আমাদেরকে এলোপাতারি মারপিট শুরু করেন। এ ঘটনায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে বলা হয়েছে। সুস্থ হলে লিখিত অভিযোগ দেয়া হবে।

খবর পেয়ে হাসপাতালে সাংবাদিকদের দেখতে আসেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান। এ সময় তিনি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা এবং অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতার করতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেন। তিনি আরও বলেন, অভিযুক্তরা আওয়ামীলীগের হলেও তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ দিকে একই দিন দুপুরে হাতীবান্ধা উপজেলার সিন্দুর্না ১নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশের রাস্তার ধারে সরকারী একটি গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছেন ওই এলাকার সাবেক পুলিশ সদস্য আনোয়ার হোসেন। তার ছবি তুলতে গিয়ে আনোয়ার হোসেনের হামলার শিকার হয়েছেন দৈনিক আজকের পত্রিকার হাতীবান্ধা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম রবি।

পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে তীব্র নিন্দাসহ অভিযুক্তদের গ্রেফতার দাবি করেছেন বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতারা।

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম লালমনিরহাট জেলা ইউনিটের সভাপতি খোরশেদ আলম সাগর এক বিবৃতিতে বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালনে সাংবাদিকদের উপর হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্ঠান্তমুলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। নয়তো কঠোর কর্মসুচি গ্রহন করতে বাধ্য হবে সাংবাদিকরা।

এবিষয়ে লালমনিরহাট রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মো. ইউনুস আলী বলেন, জাতির বিবেক সাংবাদিক সমাজ আজ অপরাধীদের পথের কাটা হয়ে গেছে। অপরাধীদের বিরুদ্ধে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলেই প্রতিনিয়ত হামলার শিকার হতে হচ্ছে সাংবাদিক সমাজকে। এভাবে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায়না। এভাবেই চলতে থাকলে দেশে সাংবাদিকতা করাটাই দায় হয়ে পড়বে। অনতিবিলম্বে অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা না হলে সকল সাংবাদিক মিলে বৃহত্তর আন্দোলন করা হবে।

আপনার জেলার সর্বশেষ সংবাদ জানুন